‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চেতনা প্রজন্ম থেকে প্রজন্মাতরে ছড়িয়ে দিতে হবে’

19

স্টাফ রিপোর্টার : ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে তার চেতনা ও স্বপ্ন অঙ্কুরে বিনষ্ট করতে চেয়েছিলো কতিপয় দুষ্কৃতিকারীরা। কিন্তু স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরও সেই চেতনা এখনো স্বমহিমায় উজ্জ্বল। এখন আমাদের কাজ হচ্ছে, বঙ্গবন্ধুর এই চেতনাকে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে ছড়িয়ে দিতে হবে। তবেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে তোলা সম্ভব হবে। এ দায় শুধু শেখ হাসিনার নয়, এ দায় দেশ ও জাতির সবার। সবাইকে সম্মিলিতভাবে চেষ্টার মাধ্যমে দেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশে পরিণত করতে হবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহীতে ব্যাপক কর্মসূচি পালন করেন বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ও সরকারি- বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।
নগর আওয়ামী লীগ : রাজশাহীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় এবং বিনম্র শ্রদ্ধায় সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি মহান স্বাধীনতার স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে। সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে দিবসটিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন, শোক র‌্যালি, নীরবতা পালন ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে কুমারপাড়ার নগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের পাশে স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন। এসময় নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনী, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকারসহ মহানগর, থানা ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহিদ সদস্যদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর নগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে বিশাল শোক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি নগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্ট, মনিচত্বর হয়ে রাজশাহী কলেজের সামনে থেকে ঘুরে পুনরায় আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।
র‌্যালি শুরুর পূর্বে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আজকে বাঙালি জাতির অনেক কষ্টের দিন। ১৯৭৫ সালে সেই মর্মান্তিক ঘটনার পর থেকে স্বাধীনতার পক্ষের সকল মানুষ নেত্রী শেখ হাসিনাকে সঙ্গে নিয়ে দীর্ঘদিন লড়াই-সংগ্রাম আন্দোলনের পর আমরা ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসতে পারি এবং আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেশ গঠনের কাজ শুরু করেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতিকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার জন্য অসংখ্যবার উৎসাহিত করেছেন, সাহস ও প্রেরণা জুগিয়েছেন, নিজে কারাবরণ করেছেন, নিজের সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য ত্যাগ করেছেন এবং বাংলার মানুষের জন্য পুরো জীবনটায় উৎসর্গ করেছেন। বঙ্গবন্ধুর মর্মান্তিক মৃত্যুর পর বাংলাদেশের স্বাধীনতার অর্জনগুলো নসাৎ করার জন্য প্রতিক্রিয়াশীল চক্রগুলো অত্যন্ত তৎপর ছিল। ১৯৭৫ থেকে ১৯৯৬ পর্যন্ত তাদের অপতৎপরতা সবই লক্ষ্য করেছি। এরপর ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চমৎকারভাবে দেশ পরিচালনা করেন। ২০০৮ সালে আবার ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া সব স্বপ্নগুলো একটা একটা করে বাস্তবায়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একাত্তর সালের পরাজিত শক্তিরা, স্বাধীনতা বিরোধীরা আর যেন কখনো ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে আবার ক্ষমতায় আসতে না পারে এবং সব অর্জন নৎসাৎ করতে না পারে-আজকের শোক দিবসে এটি আমাদের শপথ।
মেয়র আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিরা কানাডা বা অন্য যেসব দেশে আছে, তাদের দেশের প্রচলিত আইনের কথা বলে আমাদের কাছে ফেরত দিচ্ছে না। তবে আমাদের দেশের সরকারের পক্ষ থেকে অব্যহতভাবে প্রচেষ্টা চলছে। আমরা আশা করি ২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীর বছরের শুরুতেই তারা এই খুনিদেরকে ফেরত পাঠাবেন এবং আমরা আইনের আওতায় এনে পলাতক খুনিদের শাস্তির বিধান করতে পারবো।
রাজশাহী জেলা আ’লীগ: জাতীয় শোক দিবসে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সকাল সাড়ে ৮টায় লক্ষীপুর মোড়ে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। দুপুরে মানবভোজে দুস্থ ও সাধারণ মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। উক্ত কর্মসূচিতে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহা. আসাদুজ্জামান আসাদের নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক জিনাতুন নেসা তালুকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম আসাদুজ্জামান, দফতর সম্পাদক ফারুক হোসেন ডাবলু, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা সিরাত উদ্দিন শাহীন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট পূর্ণিমা ভট্টাচার্য, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মোখতার হোসেন, উপ-দফতর সম্পাদক প্রভাষক শরিফুল ইসলাম, জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আলী আজম সেন্টু, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি আবদুল্লাহ খান, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, সাধারণ সম্পাদক মেরাজুল ইসলাম মেরাজ, জেলা যুব মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নার্গিস শেলীসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিকলীগের নেতৃবৃন্দ। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয়, দলীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন, সারা দিনব্যাপি মাইকে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ও কোরআন তেলওয়াত প্রচার করা হয়।
রাসিক: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেছেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন ও কাউন্সিলর, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। সকালে নগর ভবন চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। এ সময় এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারের শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।
এ সময় সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ ও ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, প্যানেল মেয়র-৩ তাহেরা খাতুন মিলি, ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিযাম উল আযিম, ২২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল হামিদ সরকার টেকন, ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজাউন নবী দুদু, ১১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম তজু, ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বেলাল আহমেদ, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, ২৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহাতাব হোসেন চৌধুরী, ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরমান আলী, ২৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তরিকুল আলম পল্টু, ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আকতারুজ্জামান, রাসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাওগাতুল আলম, সচিব আবু হায়াত মো. রহমতুল্লাহ, প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা শাহানা আখতার জাহান, মেয়রের একান্ত সচিব আলমগীর কবির, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম, বাজেট কাম হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম খান, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী খন্দকার খায়রুল বাসারসহ রাসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় : জাতীয় শোক দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাৎবার্ষিকীতে তাঁর পরিবারের নিহত সকল শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) প্রশাসন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে অবস্থিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে তাঁরা শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।
এদিন সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রশাসনভবনসহ অন্যান্য ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন ও তাঁর রুহের মাগফিরাত কামনা করা হয়।
এ সময় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল-আরিফ ও রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এমএ বারী, ছাত্র-উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকারসহ অনুষদ অধিকর্তা, বিভাগীয় সভাপতি, ইনস্টিটিউট পরিচালক, হল প্রাধ্যক্ষবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে দিবসটি স্মরণে গতকাল বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। এসময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
পুষ্পস্তবক অর্পণের পর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, ‘জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে তৎকালীন স্বাধীনতাবিরোধীরা হত্যা করেছিল। শুধু তাই নয় বঙ্গবন্ধুর পরিবারের ওপরও এই হত্যাকান্ড চালানো হয়েছিল। আমরা এ ঘটনার তিব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং বঙ্গবন্ধুর কৃতকর্মের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছি।’
রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় : দিবসটি উপলক্ষে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যায়ের উদ্যোগে সকাল ১০টায় কালোব্যাজ ধারণ, শোক র‌্যালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন ও ১৫ আগস্টের শহিদদের স্মরণে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়েছে। এছাড়া বৃক্ষরোপণ ও বাদ আসর রুয়েট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে মিলাদ মাহফিলের মধ্য দিয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হয়েছে। এর আগে সূর্যোদয়ের সাথে সাথে প্রশাসন ভবন ও হলসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও শোকের প্রতীক কালো পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। এসব কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. রফিকুল ইসলাম শেখ।
আরো উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মো. সেলিম হোসেন, বিভিন্ন অনুষদের ডীনবৃন্দ, পরিচালক ছাত্রকল্যাণ ও ১৫ আগস্ট ‘জাতীয় শোক দিবস ২০১৯’ উদযাপন কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. রবিউল আওয়াল, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন পরিচালক প্রফেসর ড. মিয়া মো. জগলুল সাদাত,গবেষণা ও সম্প্রসারণ পরিচালক প্রফেসর ড. মো. ফারুক হোসেন, আইকিউএসি এর পরিচালক প্রফেসর ড. মো. মোশাররফ হোসেন, আইআইসিটির পরিচালক প্রফেসর ড. মো. শহীদ্জ্জুামান, শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মো. কামরুজ্জামান সরকার, বিভাগীয় প্রধানবৃন্দ, উপ-পরিচালক ছাত্রকল্যাণ মো. মামুনুর রশিদ, আবু সাঈদ, হলের প্রভোস্টবৃন্দ, কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মুফতি মাহমুদ রনি, রুয়েট ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম রহমান নিবিড়, কর্মচারী সমিতির সভাপতি মহিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মো. আসলাম উদ্দীনসহ বিভিন্ন দপ্তর প্রধানবৃন্দ, শাখা প্রধানবৃন্দ, শিক্ষার্থীবৃন্দ প্রমুখ।
বঙ্গবন্ধু পরিষদ রাজশাহী জেলা শাখা : বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উদযাপিত হয়। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি রাবির সাবেক উপাচার্য ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর আবদুল খালেক এবং সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর মো. আবুল কাশেম।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়া, উপ-উপাচার্য প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর এম এ বারী, ছাত্র উপদেষ্টা প্রফেসর লায়লা আরজুমান বানু, রাবির সাবেক উপ-উপাচার্য প্রফেসর মুহম্মদ নূরুল্লাহ্ এবং বঙ্গবন্ধু পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ছাদেকুল আরেফিন মাতিন।
অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, প্রফেসর পিএম সফিকুল ইসলাম, প্রফেসর হাসিবুল আলম প্রধান, প্রফেসর রেজাউল করিম-৩, প্রফেসর মো. আনসার উদ্দীন, অধ্যাপক মোজাম্মেল হোসেন বকুল, অধ্যাপক সোহেল মেহেদী, নাসিমা খাতুন, এম. আব্দুল কুদ্দুস, ইদ্রিস আলী, নাসরীন লুবনা, হাসান ঈমাম সুইট, জামসেদ হোসেন টিপু প্রমুখ।
বঙ্গবন্ধু পরিষদ : দিবসটি উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুপরিষদ নগরের উদ্যোগেস্বাধীনতা চত্ত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অপর্ণ করা হয়। বিকেল ৫ টায় স্থানীয় শাহমখদুম কলেজে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের প্রাক্তণ চেয়ারম্যান প্রফেসর নূরল আলম।
মূল নিবন্ধ উপস্থাপন করেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার। আলোচনায় অংশ নেন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান প্রফেসর তানবিরুল আলম ও বরেন্দ্রকলেজের অধ্যক্ষ আলমগীর মালেক। স্বাগত বক্তব্য দেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ নগরের সাধারণ সম্পাদক কবি আরিফুল হক কুমার। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ রাজশাহী মহানগরের সহসভাপতি প্রফেসর রুহুল আমিন প্রামাণিক। অনুষ্ঠানের শুরুতে বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির উদ্দেশ্যে সমবেত সঙ্গীত পরিবেশন করে বঙ্গবন্ধু পরিষদ রাজশাহী মহানগরের সাংস্কৃতিক ইউনিট।
বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা : সংগঠনের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উদযাপিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার প্রধান উদেষ্টা রাবির সাবেক উপাচার্য ও বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর আবদুল খালেক এবং সভাপতি প্রফেসর ড. পি এম সফিকুল ইসলাম।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রফেসর ড. জান্নাতুল ফেরদৌস শিল্পী, প্রফেসর ড. লায়লা আরজুমান বানু, ড. হুমায়ূন কবির, সুখন সরকার, সোহেল মেহেদী, ড. নাসিমা খাতুন, এম এ কুদ্দুস, আফরোজা আক্তার এ্যানি, হাসান ঈমাম সুইট, এম এ কাইউম, জামসেদ হোসেন টিপু, সোহেল রানা, তাপস কুমার, মাজেদুল ইসলাম রাতুল, মুক্তি খাতুন, শারমিন ইতি প্রমুখ।
জনতা ব্যাংক লিমিটেড : জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৭টায় জনতা ব্যাংক লিমিটেড, রাজশাহী কর্পোরেট শাখা থেকে র‌্যালি ও বঙ্গবন্ধু চত্বরে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। সেইসাথে স্বেচ্ছায় রক্তদান ও বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বিভাগীয় কমিশনার মো. নূর-উর-রহমান। এসময় অন্যদের মধ্যে জনতা ব্যাংকের ডিজিএম মাইনুল হাবিব, জিবি এম আবু তাহির, আহম্মদ আজিজ আহসান এজিএম এসএম বরকতুল্যা, নজরুল ইসলাম, একরামুল হক, বিভাগীয় কমিশনার অফিসের ডিডি সালাহ উদ্দীন উপস্থিত ছিলেন। স্বেচ্ছায় রক্তদান ও বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন জনতা ব্যাংক লিমিটেড এরিয়া অফিস রাজশাহীর ডিজিএম তাপস কুমার মজুমদার। রক্তদান কর্মসূচিতে সার্বিক সহযোগিতায় ছিল রোটারী ক্লাব অব পদ্মা, বাঁধন, ক্যান্সার হাসপাতাল। জনতা ব্যাংকের ২৫ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী রক্তদান করেন। ক্যান্সার হাসপাতালের ডা. প্যাট্রিক বিপুল বিশ্বাস, রোটারী ক্লাব অব পদ্মা রাজশাহীর ডা. শামসুল আলম, নাজমা রহমান, রোজি সিদ্দিকী পুরো কর্মসূচি সহযোগিতা করেন।
বাউয়েট : বাংলাদেশ আর্মি ইউনিভার্সিটি অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (বাউয়েট) ক্যাম্পাসের স্কাইলাইট হলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তফা কামাল।
আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অবসরপ্রাপ্ত কর্ণেল মোহাম্মদ হামিদুল হক, ব্যবসায় অনুষদের ডিন ও ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. মো. শাহ আলম, রেজিস্ট্রার ড. মোশারফ হোসেন, ইংরেজি বিভাগের প্রধান সহযোগী অধ্যাপক মো. হামিদুর রহমান, রসায়ন বিভাগের প্রভাষক মইনুল ইসলাম, কর্মচারী মো. জহুরুল হক, সিইই বিভাগের ছাত্র তানভীর হাসান, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের ছাত্রী ফাহমিদা শোভা প্রমুখ।
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানের শুরুতে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। অনুষ্ঠানের শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীভিত্তিক প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শনী করা হয়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন, রসায়ন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম।
সকাল সাড়ে ৮টায় জাতীয় ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন এবং অর্ধনমিত করে সালাম প্রদান করেন যথাক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর এবং ট্রেজারার। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সকল অনুষদের ডিনগণ, বিভাগীয় প্রধান, প্রক্টর, ছাত্র কল্যাণ উপদেষ্টা, অন্যান্য বিভাগের শিক্ষকমন্ডলী, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা ও কর্মচরীবৃন্দ। এছাড়া বাদ জোহর বাউয়েট কেন্দ্রীয় মসজিদে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।
রাজশাহী আঞ্চলিক তথ্য অফিস : আজ রাজশাহী আঞ্চলিক তথ্য অফিসে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদাত বার্ষিকীতে ‘জাতীয় শোক দিবস’ পালন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
আলোচনা সভায় বক্তারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বর্ণাঢ্য জীবনীর উপর আলোকপাত করেন। তারা বলেন, এ মহান নেতা এদেশের মানুষের মুক্তি, কল্যাণ ও স্বাধীনতার জন্য আজীবন সংগ্রাম করেছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল সুখী-সমৃদ্ধÑদারিদ্র্যমুক্ত স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলা। তার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে যে উন্নয়নমুখী কার্যক্রম গ্রহণ করেছেন তা সফল করতে নিজ নিজ অবস্থান থেকে দায়িত্বশীল হতে হবে। রাজশাহী আঞ্চলিক তথ্য অফিসের সিনিয়র তথ্য অফিসার ফারুক মো. আব্দুল মুনিম এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় তথ্য অফিসার মো. সামিউল আলমসহং অফিসের কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড: দিবসটি উপলক্ষে অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড রাজশাহীতে কর্মরত সকল নির্বাহী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা র‌্যালি বের করে। সকালে সাহেববাজার করপোরেট শাখা প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হয়ে স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। র‌্যালি শেষে করপোরেট শাখা প্রাঙ্গণে রাজশাহী সার্কেলের আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল’ অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান আলোচক ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মোহা. মোকবুল হোসেন। প্রধান অতিথি ছিলেন, ব্যাংকের সার্কেল প্রধান মহাব্যবস্থাপক ওয়ালি উল্লাহ ্। বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. মাওলানা বারকুল্লাহ্-বিন-দুররুল হুদা, রাজশাহী অঞ্চল প্রধান উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. শহীদুল্লাহ্। কর্পোরেট শাখা প্রধান উপ-মহাব্যবস্থাপক জালাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, ব্যাংকের রাজশাহী অঞ্চলের অফিসার সমিতি এবং কর্মচারী সংসদ (সিবিএ) এর নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠান শেষে দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় : দিবসটি উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্যে দিয়ে এ অনুষ্ঠান শুরু হয়। বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপাচার্য প্রফেসর ড. এম ওসমান গনি তালুকদারের সভাপতিত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন, প্রধান অতিথি ছিলেন, বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত উপদেষ্টা ড. এম. সাইদুর রহমান খান। সে সময় উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও অর্থনীতি বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. তারিক সাইফুল ইসলাম, ইংরেজি বিভাগের প্রধান প্রফেসর শহিদুর রহমান, ইইই বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম মন্ডলসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।
রাজশাহী সড়ক পরিবহণ গ্রুপ: দিবসটি উপলক্ষে প্রধন কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল শেষে খাবার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সাধরণ সম্পাদক অধ্যাপক মুনজুর রহমান (পিটার), সভাপতি শাহনেওয়াজ আলি, সহ সভাপতি নাজিমুদ্দিন শেখ, নুরুজামান মোহন যুগ্ম সম্পাদক সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব, সহ-সাধরণ সম্পাদক মাইনুল কবির (দীপু), মেহেদী মাসুদ, কোষাধ্যক্ষ মতিউল হক (টিটো)।
সোনালী ব্যাংক: দিবসটি উপলক্ষে সোনালী ব্যাংক লিমিটেড জিএম অফিস রাজশাহীর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধাজ্ঞাপনসহ নগর আওয়ামী লীগের কার্যালয় সংলগ্ন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন ও শোক র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। উপস্থিত ছিলেন, জিএম অফিসের জেনারেল ম্যানেজার আমির হোসেন, প্রিন্সিপাল অফিসের ডিজিএম মৃত্যুঞ্জয় সাহা, জিএম অফিসের এজিএম মনোয়ার হোসেন, রথীন্দ্র নাথ চক্রবর্তী, রাজশাহী কর্পোরেট শাখার এজিএম ফরিদ আহমেদ, গ্রেটার রোড শাখার এজিএম মো. কামরুজ্জামান, এমপ্লয়ীজ ইউনিয়ন বি-২০২ এর সভাপতি মো. সালাহউদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মুজাহার আলী , বঙ্গবন্ধু পরিষদের অরুপ কুমার দাস ও গোলাম মাহমুদ নয়ন এবং বঙ্গমাতা পরিষদের ওয়াসেক আলীসহ সোনালী ব্যাংক লিমিটেড রাজশাহী বিভাগের সর্বস্তরের কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দ।
পরে সোনালী ব্যাংক লিমিটেড জিএম অফিস রাজশাহী ভবন চত্বরে দোয়া মাহফিল, কোরআন খতম, আলোচনা সভা ও স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। সভাপতিত্ব করেন, সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার আমির হোসেন। আলোচনা সভার পাশাপাশি সোনালী ব্যাংক লিমিটেডের কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দ স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিতে সহযোগিতা করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের সন্ধানী।

বারিন্দ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল লি: দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় পতাকা (অর্ধনমিত) উত্তোলন, পুস্পমাল্য প্রদান, শোকর‌্যালি, দোয়া মাহ্ফিল, ফ্রি রক্তদান কর্মসূচি এবং হাসপাতালে বিনামূল্যে প্যাথলজিক্যাল টেস্ট ও চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, প্রিন্সিপাল, ডাইরেক্টর, প্রফেসর, ডাক্তার, ছাত্র-ছাত্রীসহ সর্বস্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।
রাজশাহী ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন: দিবসটি উপলক্ষে কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে ভোরে অর্ধনমিত অবস্থায় জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বিনামূল্যে ডায়াবেটিস সনাক্তকরণ, বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা, ইসাহাক আলী কনফারেন্স হলে শোকসভা, এক মিনিট দাড়িয়ে নিরাবতা পালন করা হয়। এসময় বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়।
শোকসভায় সভাপতিত্বে করেন, সমিতির সভাপতি প্রফেসর ডা. এম ফজলুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য দেন, সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ডা. মামুন উর রশীদ।
কার্যনির্বাহী পরিষদ সদস্য, চিকিৎসক ও কর্মকর্তাগণ বঙ্গবন্ধুর জীবনের বিভিন্ন দিক উল্লেখ করে বক্তব্য দেন। সঞ্চালনায় ছিলেন, শিক্ষাবিদ ড. তসিকুল ইসলাম রাজা। এসময় সকল চিকিৎসক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী শোকসভায় উপস্থিত ছিলেন।
মহিলা টিটিসি: রাজশাহী মহিলা টিটিসিতে সূর্যদয়ের সঙ্গে সঙ্গে অধ্যক্ষ নাজমুল হক এর নেতৃত্বে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করণ ও প্রশিক্ষক/শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের কালো ব্যাচ ধারণের মধ্যদিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়।
সকালে দিবসের কর্মসূচির অংশ হিসেবে শহিদ কামারুজ্জামান মিলনায়তনের বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলিসহ পুষ্পস্থবক অর্পণ করা হয়।
আলোচনা সভা শেষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন, রাজশাহী মহিলা টিটিসির অধ্যক্ষ নাজমুল হক। প্রধান অতিথি ছিলেন, নগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ঠ মুক্তিযোদ্ধা (৭নম্বর সেক্টর, উপসেক্টর ৫ চাঁপাইনবাবগঞ্জ) মো. নুরুন্নবী। আলোচনা পর্বে অংশগ্রহণ করে বক্তব্য দেন, সহ সম্পাদক আজীম শেখ ও রাজশাহী মহিলা টিটিসির জেনারেল শিক্ষক মনিরুল হাসান। বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারসহ সকল শহিদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পরে শিক্ষার্থী, প্রশিক্ষণার্থী ও এতিম শিশুদের মাঝে খিচুড়ী বিতরণের মধ্যেদিয়ে দিবসের কর্মসূচি শেষ করা হয়।
রাজশাহী কলেজ : দিবসটি উপলক্ষে সেমিনার, কবিতা আবৃত্তি, হামদ-নাত, কুইজ, চিত্রঙ্গিন প্রতিযোগিতা, শোক র‌্যালি ও বিশেষ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ৫ থেকে ৭ আগস্ট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় অনুষদ ভিত্তিক আলোচনা সভা এবং বিভাগ পর্যায়ে প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ। ৮ আগস্ট বিভাগ পর্যায়ে প্রথম স্থানকারীদের নিয়ে হয় কেন্দ্রীয় প্রতিযোগিতা। ১৫ আগস্ট সূযোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও কলো পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসটির কর্মসূচি শুরু হয়। রবীন্দ্র-নজরুল চত্বর থেকে গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় অধ্যক্ষ প্রফেসর মহা. হবিবুর রহমান ও উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা. আব্দুল খালেকের নেতৃত্বে শোক র‌্যালি বের হয়। এরপর র‌্যালি শেষে কলেজ মিলনায়তনের নিচতলায় ‘বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মভিত্তিক’ চিত্র প্রদর্শনী প্রদর্শন করা হয়। বাদ জোহর রাজশাহী কলেজ জামে মসজিদে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
জাতীয় পার্টি : গতকাল সকাল সাড়ে ৮টায় শহিদ এএইচএম কামারুজ্জামান কেন্দ্রীয় উদ্যানের গেট থেকে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শোক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিতে জাতীয় পার্টির রাজশাহী মহানগরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লুৎফর রহমান, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান ডালিমের নেতৃত্বে নেতাকর্মীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। এরপর নগর জাতীয় পার্টির কার্যালয়ে শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রুরাল ডিভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম অব পিপলস্: দিবসটি উপলক্ষে উপকারভোগিদের মাঝে ডেঙ্গু প্রতিরোধ মশারি বিতরণ করা হয়েছে। প্রধান অতিথি ছিলেন, নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সমাজসেবী শাহীন আক্তার রেনী।
বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি নুরুল ইসলাম, ১৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ারুল জাহিদ, সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন। সভাপতিত্ব করেন, প্রতিষ্ঠানের সভাপতি তরিকুল ইসলাম।
উদয়ন ডেন্টাল কলেজ: দিবসটি উপলক্ষে গত ১ থেকে ৮ আগস্ট পর্যন্ত ফ্রি ডেন্টাল চেকআপ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সবাল উদয়ন ডেন্টাল কলেজের বর্হিঃবিভাগে এর কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন, ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. নুরুজ্জামান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. ওবাইদুর রহমান চৌধুরী।
জনতা ব্যাংক বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও জনতা ব্যাংক সিবিএ:
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গতকাল ১৫ আগস্ট বৃহস্পতিবার সকালে জনতা ব্যাংক লিমিটেড বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও জনতা ব্যাংক সিবিএ-এর উদ্যোগে জনতা ব্যংক মহিলা শাখার সামনে থেকে একটি শোক র‌্যালি বের করে। শোক র‌্যালিটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বঙ্গবন্ধু চত্বরে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের অন্যান্য শহিদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন করে। র‌্যালি শেষে জনতা ব্যাংক সাহেববাজার কর্পোরেট শাখায় শোকসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এসেময় উপস্থিত ছিলেন, জনতা ব্যাংক লিমিটেড বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও জনতা ব্যাংক সিবিএ-এর সভাপতি ও জাতীয় শ্রমিক লীগ রাজশাহী নগরের সভাপতি মো. বদরুজ্জামান খায়ের,মো. আবদুল কুদ্দুস, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি কাজী রায়হান,দীলিপ কুমার তালুতদার, মো. জহুরুল ইসলাম,মো. আশরাফুজ্জামান মিল্টন, মো.ইসরাফিল,মো. মাইদুল ইসলাম, মো. মিজানুর রহমান, তুরহান শবনম ও সিবিএ সাধারণ সম্পাদক মো. মনোয়ার হোসেন। দোয়া পরিচালনা করেন আবু বাক্কার সিদ্দিক।

নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি: দিবসটি উপলক্ষে সকালে বিনোদপুরের ইউনিভার্সিটির প্রশাসনিক ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ এবং কালো পতাকা উত্তোলন ও জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার মাধ্যমে দিবসটি পালিত হয়। শুরুতে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জািনয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।
অনুষ্ঠানে ইউনিভার্সিটির উপাচার্য শিক্ষাবিদ, গবেষক ও কলামিস্ট প্রফেসর ড. আবদুল খালেক বক্তব্য দেন।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান বরেণ্য কথাশিল্পী অধ্যাপিকা রাশেদা খালেক ও মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান আলী বরজাহান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ইউনিভার্সিটির উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মুহম্মদ আবদুল জলিল, চিফ কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ড. পি.এম. সফিকুল ইসলাম, রেজিস্ট্রার রিয়াজ মোহাম্মদ, কো-অর্ডিনেটর, প্রক্টর, শিক্ষক, অতিথি এডভোকেট জোসনা, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।
লফস: দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন এর রাজশাহী জেলার সংস্থা সমূহের আয়োজনে ও অত্র জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েলফেয়ার – লফস এর ব্যবস্থাপনায় সংস্থার কার্যালয়ে আলোচনাসভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন, লফস সভাপতি শামীম আক্তার।
উপস্থিত ছিলেন, লফস এর নির্বাহী পরিচালক শাহানাজ পারভীন। অনুষ্ঠানে কাবিউস এর নির্বাহী পরিচালক মধুসুধন মৈত্র সহ সহযোগি সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দসহ লফস এর কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। দোয়া পরিচালনা করেন, আখের হোসেইন।
জাতীয় মহিলা সংস্থা: দিবসটি উপলক্ষে জাতীয় মহিলা সংস্থা রাজশাহী জেলা শাখার উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন সংস্থার রাজশাহী জেলা শাখার চেয়ারম্যান মর্জিনা পারভীন।
প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য দেন, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর তানবিরুল আলম।
বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী জেলা যুবলীগের সভাপতি আবু সালেহ্, রাজশাহী জেলা মহিলা লীগের সহসভাপতি নূরজাহান সরকার। উপস্থিত ছিলেন, সংস্থার সহকারী প্রোগ্রামার আবুল হাসান, প্রশিক্ষক সাবিয়া সুলতানা, আফরিনা, রহিমা খাতুন, মনিরা খাতুন প্রমুখ।
জাতীয় আদিবাসী পরিষদ: দিবসটি উপলক্ষে কুমারপাড়ায় বঙ্গবন্ধু চত্বর স্মৃতি সৌধে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়। শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন শেষে বঙ্গবন্ধুর আত্মার শান্তি কামনায় এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় আদিবাসী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির দফতর সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র হেমব্রম, নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক আন্দ্রিয়াস বিশ্বাস, কেন্দ্রীয় সদস্য রাজকুমার শাও, আদিবাসী ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক তরুন মুন্ডা প্রমুখ।
ইসলামী ব্যাংক নার্সিং কলেজ: দিবসটি উপলক্ষে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। কলেজ রাজশাহীর অধ্যক্ষ মেজর (অব:) ডালিম বেগমের সভপতিত্বে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন, কলেজের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, কলেজের শিক্ষক সাহিদা সুলতানা, শওকত আরা সুলতানা প্রমুখ। কলেজের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। দোয়া পরিচালনা করেন রাসেল মিজান।
নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ : দিবসটি উপলক্ষে ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আব্দুল মোমিন ও সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকারের নেতৃত্বে নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সকল স্তরের নেতাকর্মীবৃন্দ সকাল সাড়ে ৯টায় কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ের স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধুসহ জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন এবং সকাল ১০টায় নগর আওয়ামী লীগের শোকর‌্যালিতে যোগদান করেন।
রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুল:
দিবসটি উপলক্ষে র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক্ষক ড. নূরজাহান বেগম। স্কুলের ছাত্রদের নিয়ে তিনটি গ্রুপে চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন, স্কুলের প্রভাতী শাখার শিক্ষক তাইফুর রহমান।
রাজশাহী বিবি হিন্দু অ্যাকাডেমি:
দিবসটি উপলক্ষে নগরীর কুমারপাড়ার স্বাধীনতা চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রধান শিক্ষক রাজেন্দ্র নাথ সরকার। পরে বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক অনল কুমার মন্ডলের পরিচালনায় বঙ্গবন্ধুর জীবন ও অবদান ভিত্তিক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য দেন, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট জগদীশ চন্দ্র ঘোষ। এসময় বঙ্গবন্ধুর আত্মার শান্তি কামনা করা হয়।
মেহেরচন্ডী উচ্চ বিদ্যালয়: দিবসটি উপলক্ষে সকালে আলোচনাসভা ও দোয়া মাহাফিল অনুষ্ঠিত হয়। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো: রবিউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আকতারুজ্জামান কোয়েল, ২৬ নম্বর ওয়ার্ড (পূর্ব) আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মিনাজ্জুল হোসেন বাবু, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, শিক্ষক-কর্মচারীবৃন্দ ও ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

SHARE