বড়াইগ্রামে পুলিশ পিকাপ-প্রাইভেটকার সংঘর্ষ: নিহত ১ || অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ আহত ৩

21

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি : নাটোরের বড়াইগ্রামে পুলিশের পিকাপের সঙ্গে প্রাইভেটকারের সংঘর্ষে শাহজাহান আলী (৫০) নামে এক প্রাইভেটকার চালক নিহত হয়েছে। সংঘর্ষে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বড়াইগ্রাম সার্কেল) হারুন-অর-রশিদ, বডিগার্ড ইব্রাহিম হোসেন ও পিকাপ চালক মোবারক হোসেন আহত হয়েছেন। আহতদের বনপাড়া আমেনা ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়ার পর নাটোর সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
গতকাল বুধবার সকাল আটটার দিকে উপজেলার মহিষভাঙ্গা এলাকায় বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত প্রাইভেটকার চালক শাহজাহান আলী মুন্সিগঞ্জ জেলার সদর থানার কাচারিঘাট এলাকার মৃত ইমান আলীর ছেলে।
বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দিলীপ কুমার দাস ও বনপাড়া হাইওয়ে থানার এসআই মাহফুজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বুধবার সকালে জরুরি কাজে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বড়াইগ্রাম সার্কেল) হারুন-অর-রশিদ সঙ্গীয় বডিগার্ড ইব্রাহিম হোসেনকে নিয়ে বনপাড়ায় যাচ্ছিলেন। পথে নাটোর থেকে ঢাকাগামী একটি প্রাইভেটকারের সঙ্গে মহিষভাঙ্গা এলাকায় মুখোমুখি সংঘর্ষে কারটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে প্রাইভেটকার চালক শাহজাহান আলী ঘটনাস্থলেই মারা যান। এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বড়াইগ্রাম সার্কেল) হারুন-অর-রশিদ, বডিগার্ড ইব্রাহিম হোসেন ও পিকাপ চালক মোবারক হোসেন গুরুতর আহত হন। পরে পুলিশ ও স্থানীয়রা গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে বনপাড়ার আমেনা ক্লিনিকে ভর্তি করেন। সেখানে অবস্থার অবনিত হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের নাটোর সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।
ওসি দিলীপকুমার দাস আরো জানান, দীর্ঘ সময় গাড়ি চালানোর কারণে প্রাইভেটকার চালক ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। যার কারণে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ ছিলনা।
খবর পেয়ে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহাসহ পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা হাসপাতাল ও ঘটনান্থল পরিদর্শন করেন। এসময় পুলিশ সুপার লিটনকুমার সাহা সাংবাদিকদের জানান, সার্কেলের গাড়িচালক মোবারক হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক তাকে আমরা রাজশাহীতে পাঠানোর জন্য ব্যবস্থা করছি।

SHARE