শেষ হলো জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব

127

স্টাফ রিপোর্টার : আনন্দ উদ্দীপনা ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে শেষ হলো সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সপ্তাহব্যাপী ধর্মীয় অনুষ্ঠান শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব। এই উল্টো রথযাত্রা উৎসবে গতকাল শুক্রবার বিকেলে ভক্তদের ঢল নেমেছিল রাজশাহীর নগরীতে।
এর আগে গত ৪ জুলাই রথবাড়ি থেকে রথ টানার মধ্যে দিয়ে শুরু হয়েছিল এ উৎসব। উল্টো রথযাত্রা উপলক্ষে বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠন এবং মন্দির নানা মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। আনন্দঘন এ উৎসবে যোগ দেন নারী-পুরুষ, শিশু, তরুণ-তরুণীরা। নগরীর প্রধান উল্টো রথযাত্রাটি আলুপট্টি এলাকা হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকালে বিশ্বশান্তির লক্ষ্যে শ্রীশ্রী জগন্নাথ দেবের পূজা। বিকেল সাড়ে ৪টায় রথ টেনে নিয়ে শহরের ঘোড়ামারা রথবাড়িতে আগের স্থানে তা রাখার বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা। এ সময় সনাতন হিন্দু রীতি অনুসারে ঢোল এবং অন্যান্য বাদ্যযন্ত্র বাজানো হয়।
হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের রাজশাহী নগরের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ জানান, প্রতি বছরের মতো এবারও ধর্মীয় মর্যাদার সাথে রথ নিয়ে শহরে শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা শেষে ভক্তদের মধ্যে মহাপ্রসাদ বিতরণ করা হয়েছে।
এদিকে, রথযাত্রা উপলক্ষে শহরের উৎসব সিনেমা হল থেকে দোশরমন্ডলের মোড় পর্যন্ত মেলা বসেছে। শেষ দিনে মেলায় সব ধর্মের মানুষ গিয়ে ভিড় জমিয়েছেন। রাস্তার দু’ধারে বাহারি সব পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা। মেলায় খেলনা, আসবাবপত্র, মুখরোচক খাবারসহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান বসেছে। শেষ দিনে কেনাবেচাও চলছে বেশ ধুমধামে।
অন্যদিকে, শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের উল্টো রথযাত্রা উৎসব উপলক্ষে আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ ইসকন ও রথবাড়ির উদ্যোগে বিকালে নগরীর চন্ডিপুর কালিমাতার মন্দির ও বোয়ালিয়া থানার মোড় থেকে পৃথক দুইটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়।
শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার সঞ্জিব ভাট্টি, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের রাজশাহী নগরের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, সাবেক টাস্টি তপন কুমার সেন,
২২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুল হামিদ সরকার টেকন, পূজা উদযাপন পরিষদ নগর সভাপতি অলোক কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শরৎ চন্দ্র সরকার, ইসকন মন্দিরের আচার্য রামেশ্বর দাস, রথবাড়ির বিমল সরকার প্রমুখ।

SHARE