১৪ জুলাই থেকে ৩২৮টি পৌরসভায় নাগরিক সেবা বন্ধ

114

বগুড়া প্রতিনিধি : আগামী ১৪ জুলাই থেকে বগুড়া সহ দেশের ৩২৮টি পৌরসভায় সব ধরনের নাগরিক সেবা বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছেন পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারী ও পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন। রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে বেতন-ভাতা ও পেনশন প্রদানের ঘোষণা দেয়া না হলে তারা আগামি ১৪ জুলাই থেকে লাগাতার আন্দোলনে যাবার আল্টিমেটাম দিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে বগুড়া থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষনা জানান বগুড়া জেলা কমিটির সভাপতি মামুনুর রশিদ। তিনি তার লিখিত এক বক্তব্য বলেন, পূর্বঘোষণা অনুযায়ী দেশের সব পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারী আগামি ১৪ জুলাই ঢাকা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নেবেন। ফলে তাদের পক্ষে স্ব-স্ব কর্মস্থলে অবস্থান করা সম্ভব হবে না এবং নাগরিক সেবা প্রদান করাও সম্ভব হবে না। ঢাকায় অবস্থান কর্মসূচি পালনকালে শুধু পাইপ লাইনে পানি সরবরাহ চালু রাখা হবে। রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে জনপ্রতিনিধিদের সম্মানি ভাতা এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা প্রদানের দাবিতে তারা প্রায় দুই বছর ধরে আন্দোলন করে আসছেন বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। সংবাদ সম্মেলনে মামুনুর রশিদ আন্দোলনের যৌক্তিকতা তুলে ধরে আরো বলেন, দেশের সংবিধান অনুযায়ী পৌরসভা রাষ্ট্রীয় তথা সরকারি প্রতিষ্ঠান এবং তাতে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী। শহর কেন্দ্রিক অবকাঠামো উন্নয়ন, পরিচ্ছন্নতা, ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, পয়ঃনিষ্কাশন, সড়ক আলোকিত করা এবং বিভিন্ন সনদ প্রদান ও নিববন্ধনসহ অন্তত ২০ ধরনের সেবা নাগরিকদের দিয়ে থাকে। আইন অনুযায়ী, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান হিসেবে পৌরসভার নিজস্ব আয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা প্রদানের বিধান থাকলেও দেশের ৯০ ভাগ পৌরসভার পর্যাপ্ত আয় বা রাজস্ব না থাকায় বর্তমানে স্থান ভেদে ৩ থেকে ৬৬ মাস পর্যন্ত বেতন-ভাতা বকেয়া রয়েছে। এ জেলার ১২টি পৌরসভার মধ্যে শুধু বগুড়া পৌরসভা ছাড়া বাকি ১১টিতেই দীর্ঘদিন ধরে বেতন-ভাতা বকেয়া রয়েছে।

SHARE