জনসংখ্যা এখন জনশক্তিতে রূপান্তরিত হচ্ছে

109

স্টাফ রিপোর্টার : জনসংখ্যা দিবসের এক আলোচনায় বক্তারা বলেছেন, জনসংখ্যা এখন জনশক্তিতে রূপান্তরিত করা হচ্ছে। এই জনসংখ্যা দেশে অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় নতুন দিগন্তের উন্মোচন করেছে।
অথচ গত শতাব্দির আশির দশকে দেশের জনসংখ্যা বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল। সময় পাল্টেছেÑদক্ষ জনসংখ্যা এখন দেশের সম্পদে পরিণত হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে পরিবার পরিকল্পনা অফিসের সম্মেলন কক্ষে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মো. নূর-উর রহমান। পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর রাজশাহীর বিভাগীয় পরিচালক শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন, উপ-পরিচালক ডা. নাসিম আখতার। এর আগে সকাল ৯টায় নগরীর রাজীব চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. গোপেন্দ্র নাথ আচার্য্য, রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হক, রাজশাহী সিভিল সার্জন কাজী মিজানুর রহমান।
সভায় বক্তারা আরো বলেন, এর মাঝে দশ কোটি কর্মক্ষম মানুষ ও পাঁচকোটি যুবক-যুবতি বিশাল শক্তির উৎস হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাদের সঠিকভাবে সঠিক পথে পরিচালনা করতে পারলে সমৃদ্ধ সোনার বাংলা বাস্তবায়ন সম্ভব হবে। বক্তারা বলেন, ‘বর্তমান সময়ে পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি পরিকল্পিত ভাবে গ্রহণ করা হচ্ছে। সচেতনতা বৃদ্ধি হওয়ায় মানুষ এখন দুইটি তিনটির বেশি সন্তান নিচ্ছে না। তৃণমূল পর্যায়ের মানুষও এখন জনসংখ্যার নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে বেশ সচেতন। কিশোরীদের মাঝে ব্যাপকভাবে সচেতনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। আনন্দের বিষয় রাজশাহীর কিশোরীরা এই বিষয়ে অনেক এগিয়ে আছে। এটা সকলের নিরলস পরিশ্রমের ফসল। তাই সচেতনতা বৃদ্ধিতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অন্য কোনো বিকল্প নেই।
এ সময় বক্তারা পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতি গ্রহণ, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ, প্রাতিষ্ঠানিক ডেলিভারি বৃদ্ধি, প্রসব পরবর্তী পরিবার পরিকল্পনা প্রদ্ধতি গ্রহণে জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা গড়ে তোলার আহ্বান জানান।
আলোচনা সভা শেষে রাজশাহী বিভাগীয় পর্যায়ে ১০ টি বিভাগে ১০ ক্যাটাগরিতে ১০ শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠানকে পুরষ্কার প্রদান করা হয়।
এদিকে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসটি পালন করেছে সূর্যের হাসি ক্লিনিক। গতকাল বিকেল সাড়ে তিনটায় নগরীর কায়েরদাড়া শাখায় আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ১৬,১৭,১৮ ওয়ার্ডের সংরক্ষিত কাউন্সিলর মাজেদা বেগম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ক্লিনিক ম্যানেজার সাজ্জাদ হোসেনসহ ক্লিনিকের কর্মীরা।

SHARE