মডেল রাউধার তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছে পুলিশ সদর দফতর

270

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজের ছাত্রী মালদ্বীপের নাগরিক মডেল রাউধা আতিফের মৃত্যুর ঘটনার তিনটি তদন্ত প্রতিবেদন চেয়েছে পুলিশ সদর দফর। পুলিশ সদর দফতর থেকে ভিসেরা, ময়নাতদন্ত ও সুরুতহাল প্রতিবেদন চেয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে মামলার তদন্ত সংস্থা পিবিআই’র রাজশাহী কার্যালয়ে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে পিবিআই রাজশাহী কার্যালয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ বলেন, রাওধার আত্মহত্যার ময়নাতদন্ত ও ভিসেরা রিপোর্টসহ তিনটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদন চেয়েছে পুলিশ সদর দফতর। তবে সেগুলো পাঠানোর জন্য সময় বেধে দেয়া হয়নি।
পুলিশ সদর দফতরে ইন্টারপোল এসব প্রতিবেদন চেয়েছে কিনা এমন বিষয়ে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ বলেন, এব্যাপারে আমার জানা নেই।
তিনি আরও জানান, পিবিআই তদন্তে রাওধা আত্মহত্যাই করেছিল সেটা পাওয়া যায়। আমরা ইতোমধ্যে রাওধার আত্মহত্যার তদন্ত কাজ শেষ করেছি এবং আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছি। অন্যান্য সংস্থার তদন্ত শেষে পঞ্চমবারের মত এ বিষয়ে তদন্ত কাজ চালাচ্ছিল পিবিআই।
উল্লেখ, মালদ্বীপের নাগরিক রাওধা আতিফ রাজশাহীর ইসলামী ব্যাংক মেডিক্যাল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিল। ২০১৭ সালের ২৯ মার্চ মেডিক্যালের ছাত্রী হোস্টেলের তার নিজ কক্ষ থেকে রাওধার লাশ উদ্ধার করা হয়। তার মৃত্যুর ঘটনা শাহমখদুম থানা পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও সিআইডি তদন্ত করে। এছাড়াও মালদ্বীপের পুলিশের দুইজন কর্মকর্তা এসে বিষয়টি তদন্ত করেছে। তবে রাওধার বাবা মোহাম্মদ আতিফ পুলিশের আত্মহতার প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করে আসছিলেন। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে তাঁর আবেদনের প্রেক্ষিতে রাজশাহীর আদালত ঘটনাটি তদন্তের জন্য পিবিআই কে দায়িত্ব দেয়।

SHARE