বাংলাদেশ এখন বিশ্বের কাছে উন্নয়নের বিষ্ময় : যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

225

স্টাফ রিপোর্টার : যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. শ্রী বীরেন শিকদার বলেছেন, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের কাছে উন্নয়নের বিষ্ময়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বাংলাদেশের সার্বিক উন্নয়ন তর তর করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি দু:খী ও মেহনতী মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর লক্ষ্যেই নিরলস পরিশ্রম করছেন। প্রতিমন্ত্রী গতকাল বাগমারা উপজেলার তাহিরপুরে শ্রী শ্রী দুর্গা পূঁজার উৎপত্তি স্থলে দুর্গা প্রতিমা স্থাপন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে একথ বরেন। এ সময় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক প্রতিমন্ত্রীর সাথে ছিলেন। তাহেরপুরের রাজবাড়ীতে ১৪৮০ খ্রিস্টাব্দে প্রায় ৫৩৮ বছর আগে রাজা কংস নারায়ণ রায় বাহাদুর কর্তৃক শ্রী শ্রী দুর্গা মাতা প্রতিষ্ঠিত হয়। তখনকার যুগে প্রায় নয় লক্ষ টাকা ব্যয়ে এ মন্দিরটি প্রতিষ্ঠিত করা হয়। এবারের দুর্গা পূজা উপলক্ষে অষ্টধাতুর মুর্তিটি নির্মাণ করতে ব্যয় হয়েছে প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা ।
ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের উন্নয়নের ম্যাজিশিয়ান। এ ম্যাজিককে হারানো যাবে না। আগামী নির্বাচনে নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করতে হবে। তবেই বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত করা সম্ভব হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি এবং ধর্ম নিরপেক্ষ জ্ঞানভিত্তিক দেশ। এখানে সব ধর্মের মানুষকে মিলেমিশে বসবাস করতে হবে। তাহলেই দেশে শান্তি প্রতিষ্ঠা বিরাজ করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের আমলে দেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসবে পূঁজা মন্ডবের সংখ্যা বহুগুণে বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি বলেন, এই বাগমারাকে এক সময় রক্তাক্ত জনপদে পরিণত করা হয়েছিল। আওয়ামী লীগ সরকার এ এলাকাকে শান্তির এলাকা হিসেবে পরিণত করেছে। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের ব্রীজ কালভার্ট ভেঙ্গেচুরে খাণ খান করে দিয়েছিল পাকহানাদার বাহিনী। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাড়ে তিন বছরে তা পুনঃপ্রতিষ্ঠা করে বদলে দিয়েছিল বাংলাদেশের চেহারা। সেই সোনার বাংলা গড়তে শেখ হাসিনা কাজ করছে।
রাকাবের জেনারেল ম্যানেজার বাবর নিশিত কুমার সাহার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (আইসিটি) মো: নজরুল ইসলাম, বাগমারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জামিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দে, রাজশাহী জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি শ্রী বীরেন্দ্রনাথ সরকার, সহসভাপতি অনিল কুমার সরকার, সম্পাদক নির্মল কুমার চ্যাটার্জিসহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

SHARE