বর্ণাঢ্য আয়োজনে গণধ্বনি প্রতিদিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

412

স্টাফ রিপোর্টার : বর্ণাঢ্য নানা আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ‘দৈনিক গণধ্বনি প্রতিদিন’ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে। পত্রিকাটির দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি ও তৃতীয় বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে বুধবার দুপুরে নগরীর একটি রেস্তোরায় কেক কাটা হয়। রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের প্রধান অতিথি হিসেবে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

এরপর পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তা, বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় দৈনিক পত্রিকার সম্পাদক, সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরসহ আমন্ত্রিত অতিথিগণ পত্রিকাটির সম্পাদক ইয়াকুব শিকদারকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। যারা শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাদের মধ্যে রয়েছেন- মহানগর পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবির বিপিএম, পিপিএম এর প্রতিনিধি হিসেবে সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার রাকিবুল ইসলাম,

রাসিকের ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন, ১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন, দৈনিক আমাদের রাজশাহী পত্রিকার সম্পাদক আফজাল হোসেন, রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাফিজুর রহমান, দৈনিক রাজশাহী সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক আহসান হাবিব অপু, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মুহা: আব্দুল আউয়াল, রাজশাহী ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জয়সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিক ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। পরে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা অনুষ্ঠান।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের। স্বাগত বক্তব্য দেন গণধ্বনি প্রতিদিনের সম্পাদক ও প্রকাশক ইয়াকুব শিকদার। পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ক্রীড়া ধারা ভাষ্যকার শিরাজী ফেরদৌস শাহ রিয়াজ ইমন।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এনটিভির রাজশাহী ব্যুরো প্রধান শ.ম সাজু, দৈনিক আমাদের নতুন সময়ের রাজশাহী ব্যুরো প্রধান মঈন উদ্দিন, মাইটিভির রাজশাহী প্রতিনিধি শাহরিয়ার অন্তু, দৈনিক আমাদের রাজশাহী পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার ইসমাইল হোসেন হুমায়ুন, গণধ্বনি প্রতিদিনের স্টাফ রিপোর্টার আসলাম আলী, দৈনিক একুশের বাণী পত্রিকার রাজশাহী প্রতিনিধি রেজাউল মহিম তপন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক রাশেদ রাজন, দৈনিক এশিয়ান এইজ পত্রিকার প্রতিনিধি সাকিব আল হাসান প্রমুখ। এছাড়া গণধ্বনি প্রতিদিনের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি, বিভিন্ন প্রিণ্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এতে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের বলেন, গণধ্বনি প্রতিদিন অল্পসময়ের মধ্যে একটি ভালো জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে পত্রিকাটি পাঠকপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এ ধারা অব্যাহত থাকলে আগামীতে পত্রিকাটি আরো ভালো অবস্থায় গিয়ে দাঁড়াবে বলে মনে করেন তিনি।

জেলা প্রশাসক বলেন, আমি যতদিন রাজশাহীতে আছি আমার আওতাধীন কোনো দফতরে দুর্নীতি হতে দেবো না। দুর্নীতি প্রতিরোধে ও দুর্নীতির সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসনের জোরালো ভূমিকা অব্যাহত থাকবে। সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করে তিনি বলেন, গণমাধ্যম সমাজের দর্পণ। এর মাধ্যমে সমাজের প্রকৃত চিত্র জানতে পারে মানুষ। সকল প্রতিকূলতার উর্ধ্বে উঠে সুপ্ত প্রতিভার বিকাশে এগিয়ে যেতে সাংবাদিক সমাজের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান জেলা প্রশাসক।

এতে সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার রাকিবুল ইসলাম বলেন, সঠিক ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে সমাজের সঠিক চিত্র তুলে ধরতে হবে। এক্ষেত্রে গণধ্বনি প্রতিদিন প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মমিন বলেন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে গণধ্বনি প্রতিদিন সবসময় সোচ্চার। সঠিক সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে পত্রিকাটি তার প্রমাণ দিয়ে যাচ্ছে। আগামীতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন বলেন, বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে নানা অনিয়মের চিত্র পত্রিকায় তুলে ধরতে হবে। এক্ষেত্রে সাংবাদিকদের আরো সক্রিয় ভূমিকা কামনা করেন তিনি।

স্বাগত বক্তব্যে পত্রিকাটির সম্পাদক ইয়াকুব শিকদার বলেন, দৈনিক গণধ্বনি প্রতিদিন ২০১৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি ডিক্লারেশন লাভ করে। এরপর একই বছরের ১৩ এপ্রিল আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে পত্রিকাটি। এরপর নিয়মিতভাবে প্রকাশিত হয়ে আসছে রাজশাহীর গণমানুষের প্রিয় পত্রিকা দৈনিক গণধ্বনি প্রতিদিন। পত্রিকাটি অল্প সময়ের ব্যবধানে পাঠকপ্রিয়তা অর্জনে ইতোমধ্যে সক্ষম হয়েছে। অন্যায় ও অসত্যের বিরুদ্ধে এবং বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশে পত্রিকাটির আপোষহীন ভূমিকা ও সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় এই পাঠকপ্রিয়তা অর্জনের একমাত্র কারণ বলে আমরা মনে করি। নানা প্রতিকুলতা সত্বেও শত বাধা অতিক্রম করে পত্রিকাটি তার অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখেছে।

SHARE