আগামীতে সব স্থানীয় সরকার নির্বাচন ইভিএমে

157

স্টাফ রিপোর্টার : আগামীতে সব স্থানীয় সরকার নির্বাচনের ভোটগ্রহণ ইভিএমে হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। তিনি বলেন, ইভিএম উন্নত প্রযুক্তিতে সমৃদ্ধ। জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে এতে ভোট দেওয়া যাবে। তবে পরিচয়পত্র না থাকলেও আঙুলের ছাপ দিয়ে ইভিএমে ভোট হবে। ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচি-২০১৯ উপলক্ষে গত রোববার বিকেলে রাজশাহী নগরীর একটি রেস্তোরাঁয় নির্বাচন কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনগুলোয় ভোট কম পড়া প্রসঙ্গে ইসি সচিব বলেন, চাহিদা পূরণ হয়ে গেলে কে সরকার গঠন করলো আর কে বাদ গেল এ নিয়ে মানুষ মাথা ঘামায় না। মানুষের কাছে ভোটার তালিকায় নাম ওঠার চেয়ে এখন বেশি জরুরি জাতীয় পরিচয়পত্র। এ পরিচয়পত্র সব দাফতরিক কাজে অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।
ইসি সচিব বলেন, পৃথিবীর যে কোনো দেশের তুলনায় বাংলাদেশের তথ্যভাণ্ডার উন্নত। জাতীয় পরিচয়পত্রে যে সব তথ্য থাকে তা কারো সঙ্গে কারোর মিল নেই। প্রত্যেকের চোখের আইরিশ ও আঙুলের ছাপ আলাদা। বিভিন্ন অভিযানে যেসব জঙ্গি নিহত হয়েছে তাদের আঙুলের ছাপ নিয়েই নির্বাচন কমিশন থেকে পরিচয় নিশ্চিত করা হয়েছে। পৃথিবীর কোনো দেশের নির্বাচন কমিশনই জাতীয় পরিচয়পত্র দেয় না, কিন্তু বাংলাদেশে এটা করা হয়। কারণ, ভোট দেওয়ার চেয়েও নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজকর্ম বা চাকরি পেতেও এটি দরকার। এজন্য নির্ভুলভাবে তথ্য সংগ্রহ করতে কর্মকর্তাদের প্রতি নির্দেশ দেন তিনি।
সভায় আরও বক্তব্য রাখেন রাজশাহীর আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ফরিদুল ইসলাম ও জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম।
এর আগে রাজশাহী সিটি নির্বাচনের সময় সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা খালেকুজ্জামান মৃত্যুবরণ করেন। সভায় তার পরিবারের হাতে সাড়ে পাঁচ লাখ টাকার চেক তুলে দেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। এসময় রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আবদুল কাদের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। এদিকে আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায় রাজশাহী কলেজ মিলনায়তনে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কর্মসূচির আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হবে। নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন।

SHARE