নগরীতে পালা করে চলবে লাল-সবুজ অটোরিকশা

192

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী ১ জুলাই থেকে রাজশাহী মহানগরীতে পালা করে চলবে লাল ও সবুজ রঙের অটোরিকশা। ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা চলাচল নিয়ন্ত্রণ এবং সড়কে শৃঙ্খলা আনতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজশাহী সিটি করপোরেশন (রাসিক)। গত ৩১ মার্চ দুপুরে নগরভবনের সরিৎ দত্ত গুপ্ত সভাকক্ষে এ মতবিনিময় সভায় যানজট নিরসনে অটোরিকশা চার্জার রিকশা চলাচলে এই নীতিমালা চূড়ান্ত করা হয়। সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ১ জুলাই থেকে ৬ আসন বিশিষ্ট অটোরিকশা ও ২ আসন বিশিষ্ট রিকশার জন্য মালিক ও চালককে আলাদ আলাদা নিবন্ধন কার্ড নিতে হবে। নিবন্ধন কার্ডে নম্বর অনুযায়ী বিজোড় নম্বর লাল রং ও জোড় নম্বর সবুজ রঙের করা হবে। মাসের প্রথম সপ্তাহে সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত লাল রঙের অটোরিকশা ও দুপুর আড়াইটা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত সবুজ রঙের অটোরিকশা চলবে। শুক্রবার ছুটির দিনসহ প্রতিদিন রাত ১০টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত উভয় রঙের অটোরিকশা চলবে। রুট প্ল্যান অনুযায়ী মহানগরী এলাকায় এ জাতীয় যানবাহন চলাচল করবে। অটোরিকশা রাস্তায় চলাচলের ক্ষেত্রে গাড়ি চালকদের নির্দিষ্ট পোশাক পরতে হবে। মেয়র জানান, সিটি করপোরেশনের যানজট নিরসনে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। অটোরিকশা ও চার্জার রিকশা নিয়ন্ত্রণে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে নীতিমালা তৈরি করা হয়েছে। এটি বাস্তবায়নে সবার সহযোগিতা প্রয়োজন। সড়কে দুর্ঘটনা ও যানজট কমাতে বিআরটিএর সহায়তায় চালকদের ট্রাফিক আইন সচেতনতায় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান মেয়র লিটন। রাজশাহী মহানগরে এখন প্রায় ২০ হাজার অটোরিকশা রয়েছে। প্রতিদিন সবগুলো এক সঙ্গে বের হয়ে যানজট সৃষ্টি করছে। এই যানজট কমাতেই নীতিমালা তৈরীর করা হয়েছে। নীতিমালায়, চিকন চাকার অটোরিকশাও শহরে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এসব অটোরিকশাও আর শহরে চলাচল করতে দেয়া হবে না।

SHARE