ছুটির দিনেও কর্মব্যস্ত মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ

184

গণধ্বনি ডেস্ক : সোমবার শপথ নিচ্ছে নতুন মন্ত্রিসভা। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বিকেল সাড়ে তিনটায় বঙ্গভবনে প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের শপথ পড়াবেন। শপথ অনুষ্ঠান ঘিরে শুক্র ও শনিবার সরকারি ছুটির দিনেও ব্যস্ত সময় পার করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয় পায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ। ইতোমধ্যেই ক্ষমতাসীন দলের বিজয়ী সংসদ সদস্যরা শপথ নিয়েছেন। এরপর নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ দল আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা সংসদ নেতা নির্বাচিত হয়েছেন। রাষ্ট্রপতির তাকে সরকার গঠনের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। শেখ হাসিনা টানা তৃতীয়বারের মত প্রধানমন্ত্রী হওয়ার অনন্যসাধারণ রেকর্ড গড়তে যাচ্ছেন।

শপথ অনুষ্ঠান ঘিরে শুক্র ও শনিবার সরকারি ছুটির দিনেও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কর্মকর্তারা সকাল থেকে রাত পর্যন্ত কর্মব্যস্ত ছিলেন। বঙ্গভবনে শপথ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের আমন্ত্রণপত্র বিতরণ ও নতুন মন্ত্রীদের জন্য পৃথক পৃথক ফাইল প্রস্তুত কাজে ব্যস্ত ছিলেন তারা। এই দুই দিনে খোদ মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমের তত্ত্বাবধানে বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তারা কাজ করেছেন, সরকারের উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ ও দফা দফায় সভাও করেছেন। তবে এসব নিয়ে কথা বলতে রাজি হননি কোনো কর্মকর্তা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে নামের তালিকা পেলে নতুন মন্ত্রিসভায় যোগ দিতে শপথ নেওয়ার জন্য মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কর্মকর্তারই যোগাযোগ করে আমন্ত্রণ জানাবেন। এখনো পর্যন্ত তাদের কাছে তালিকা আসেনি।

সংবিধানের ৫৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, মন্ত্রিসভার সদস্যদের ১০ ভাগের ৯ ভাগ সংসদ-সদস্যদের মধ্য থেকে নিয়োগ পাবেন। বাকি এক ভাগ সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার যোগ্য ব্যক্তিদের মধ্য থেকে টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী বা উপমন্ত্রী হতে পারেন।

নতুন মন্ত্রীদের জন্য সরকারি পরিবহনপুল থেকে ২০টি গাড়ি প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পরিবহন কমিশনার সৈয়দ আবদুল মমিন জানিয়েছেন, মন্ত্রিসভার নতুন সদস্যদের যানবাহন ও চালক ঠিক করা হয়েছে। সম্ভাব্য মন্ত্রিসভার সদস্য নিশ্চিত হলেই তাদের কাছে গাড়ি পাঠানো হবে।

SHARE