পোস্টের বাধায় জয়বঞ্চিত উরুগুয়ে

8

স্পোর্টস ডেস্ক : বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে ড্র করেছে উরুগুয়ে। ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচটি শেষ হয় গোলশূন্য সমতায়। ১৯৯০ সালের পর বিশ্বকাপের কোনো ম্যাচে দু’বার পোস্টে বল মেরেছেন উরগুয়ের খেলোয়াড়রা। মজার ব্যাপার হলো, শেষবারও তাদের প্রতিপক্ষ ছিল দক্ষিণ কোরিয়া। সবমিলিয়ে বিশ্বকাপে আটবার গোলশূন্য ড্র করেছে উরুগুয়ে। আসরে তাদের চেয়ে বেশি গোলশূন্য ড্র আছে কেবল ইংল্যান্ড (১১) ও ব্রাজিলের (৯)। তবে এই ম্যাচে একটি রেকর্ডও গড়েছে উরুগুয়ে। বিশ্বকাপের গ্রুপপর্বে টানা ৪৮২ মিনিট কোনো গোল হজম করেনি দু’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। সবশেষ গ্রুপপর্বের কোনো ম্যাচে উরুগুয়ে গোল হজম করেছিল ২০১৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।
এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধে উভয় দলের বল পজেশন ছিল সমান সমান ৫০ শতাংশ। তবে শুধু উরুগুয়ে অনটার্গেটে একটি শট নিতে পেরেছে।
বিজ্ঞাপন
দু’দলই একটি করে বিগ চান্স মিস করেছে এই অর্ধে। ৩৪তম মিনিটে বক্স থেকে গোল করার সুযোগ নষ্ট করেন দক্ষিণ কোরিয়ার উই-জো হোয়াং। আর ৪৪তম মিনিটে উরুগুয়ে ডিফেন্ডার দিয়েগো গোডিনের হেড বাধাপ্রান্ত হয় পোস্টে।
দ্বিতীয়ার্ধে বল পজেশন বেশি নিয়েও দক্ষিণ কোরিয়ার রক্ষণকে তেমন পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি উরুগুয়ে। এডিনসন কাভানির বদলি হওয়ার আগে ৬৪ মিনিট পর্যন্ত মাঠে ছিলেন লুইস সুয়ারেজ। বল টাচ করেছেন ১৮ বার। গোল পোস্টের ভেতরে কিংবা বাইরে একটি শটও নিতে পারেননি বার্সেলোনার সাবেক এই তারকা। সুয়ারেজের সঙ্গে আক্রমণভাগের বাকি খেলোয়াড়রাও ছিলেন নিষ্প্রভ।
আর ভাগ্যও যেন উরুগুয়ের পক্ষে ছিল না। গোডিনের পর ৯০তম মিনিটে ফেদে ভালভার্দের দূরপাল্লার শট ফিরিয়ে দেয় পোস্ট। পরের মিনিটেই অবশ্য দক্ষিণ কোরিয়ার নায়ক হওয়ার সুযোগ ছিল হিউং-মিন সনের। কিন্তু গোলপোস্টের বাইরে শট মারেন তিনি। পুরো ম্যাচে অনটার্গেটে কোনো শট নিতে পারেননি দক্ষিণ কোরিয়ার ফুটবলাররা।
ইতোমধ্যেই এক আসরে সর্বোচ্চ গোলশূন্য ড্রয়ের রেকর্ড হয়ে গেছে। এই ম্যাচসহ চলতি আসরে আটটি দল (ডেনমার্ক, তিউনিশিয়া, মেক্সিকো, পোল্যান্ড, মরক্কো, ক্রোয়েশিয়া, উরুগুয়ে, দক্ষিণ কোরিয়া) নিজেদের প্রথম ম্যাচে ০-০ ড্র করেছে। সংখ্যাটা কোথায় গিয়ে থামে তাই দেখার বিষয়। উল্লেখ্য, রাশিয়ায় গত আসরে ০-০ ড্র ছিল মাত্র একটি (ডেনমার্ক-ফ্রান্স)।

SHARE