দুর্গাপুরে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে ২০ লাখ টাকার মাছ নিধন

11

স্টাফ রিপোর্টার, দুর্গাপুর: রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার কিসমতগনকৈড় ইউনিয়নের কয়ামাজমপুর বিলে পূর্ব শত্রুতার জেরে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ২০ লাখ টাকার মাছ নিধন করেছে দূবৃর্ত্তরা। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে ক্ষতিগ্রস্ত মাছচাষী মোস্তফা মন্ডল।

মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে ওই ইউনিয়নের কয়ামাজমপুর সরদারপাড়া পূর্বের বিলে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, উপজেলার কয়ামজমপুর গ্রামের মোফাজ্জল হোসেন নাসিমের কাছ থেকে চারটি পুকুর লীজ নিয়ে মাছচাষ করছিলেন তাহেরপুর পৌর এলাকার মৎস্যচাষী মোস্তফা মন্ডল। দীর্ঘদিন ধরে ওই পুকুরে মাছচাষ করেই জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন তিনি। মঙ্গলবার রাতে তার দুইটি পুকুরে বিষপ্রয়োগ করে দুর্বৃত্তরা।

মোস্তফা মন্ডলের অভিযোগ, পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের লোকজন বিভিন্নভাবে আমার ক্ষতি করার চেষ্টা চালায়। সরাসরি ক্ষতি করতে না পারলেও রাতের অন্ধকারে পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে প্রতিপক্ষরা। এতে পুকুরে থাকা দুইশ থেকে আড়াইশো মণ মাছ মারা গেছে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ২০ লাখ টাকা।

মৎস্যচাষী মোস্তফা মন্ডল বলেন, আমি পুকুরে মাছ চাষ করেই কোনরকম ভাবে সংসারটা চালাচ্ছি। প্রতিপক্ষের লোকজন বিভিন্ন ভাবে আমার ক্ষতি করে আসছে। গেল রাতে তারা আমার পুকুরে বিষ দিয়েছে। এতে আমার পুকুরে থাকা প্রায় দুই থেকে আড়াইশো মণ মাছ মারা গেছে। ঋণের টাকা নিয়ে মাছচাষ করেছি। এখন আমার কি হবে। তারা আমাকে রাস্তায় নামিয়ে দিল, এখন আমি কি করবো কিছুই বুঝতে পারছি না। তিনি আরও বলেন, আমার তিন মেয়ে। ব্যবসা করেই তাদের পড়াশোনার খরচ বহন সহ দুই মেয়ের বিয়ে দিয়েছি। মাছচাষ করে কোনরকম সংসারটা চালাচ্ছি।

দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল হক বলেন, লিখিত অভিযোগ থানায় দিয়েছে কিনা জানা নেই। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

SHARE