বাগমারায় প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে কৃষি প্রণোদনার উদ্বোধন

21

হেলাল উদ্দীন,বাগমারা : রাজশাহীর বাগমারায় ২০২২-২৩ অর্থবছরে রবি মৌসুমে গম, ভুট্টা, সরিষা, সূর্যমুখী, চিনাবাদাম, শীতকালীন পেঁয়াজ, মসুর ও খেসারীর উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সকাল ১০ টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে প্রণোদনা কর্মসূচীর আয়োজন করেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইদা খানমের সভাপতিত্বে এবং উদ্ভিদ সংরক্ষণ কর্মকর্তা হাফিজুর রহমানের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বিনামূল্যে কৃষি প্রণোদনার উদ্বোধন করেন, রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য, ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, কৃষি অফিসার কৃষিবিদ আব্দুর রাজ্জাক।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মমতাজ আক্তার বেবী, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল, বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম, চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান, ইউনিয়নের চেয়ারম্যানবৃন্দ, উপকারভোগী কৃষক সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

২০২২-২৩ অর্থবছরে রবি মৌসুমে গম, ভুট্রা, সরিষা, সূর্যমুখী, চিনাবাদাম, মসুর, খেসারী ও শীতকালীন পেঁয়াজের উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ করা হয়। উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভায় ৫ হাজার ৬২০ জন কৃষকের বীজ ও সার প্রদান করা হয়েছে।

৪৫০ জন কৃষকের মাঝে ২০ কেজি করে গম, ২০ কেজি করে ডিএপি ও এমওপি, ৯৫০ জনের মাঝে ২ কেজি করে ভুট্রা, ১০ কেজি ডিএপি ও এমওপি, ৪ হাজার জনের মাঝে ১ কেজি করে সরিষা, ১০ কেজি করে ডিএপি ও এমওপি, ২০ জনের মাঝে ১ কেজি করে সূর্যমুখী, ১০ কেজি করে ডিএপি ও এমওপি, ২০ জনের মাঝে ১০ কেজি করে চিনাবাদাম, ১০ কেজি করে ডিএপি ও ৫ কেজি করে এমওপি, ১০ জনের মাঝে ১ কেজি করে শীতকালীন পেঁয়াজ বীজ, ১০ কেজি করে ডিএপি ও এমওপি,২০ জনের মাঝে ৫ কেজি করে মসুর, ১০ কেজি করে ডিএপি ও ৫ কেজি করে এমওপি, ২০ জনের মাঝে ৮ কেজি করে খেসারী, ১০ কেজি করে ডিএপি ও ৫ কেজি করে এমপি সার সহায়তা প্রদান করেন।

SHARE