পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব ছড়ানোয় যুবকের পাঁচ বছর কারাদণ্ড

25

স্টাফ রিপোর্টার: পদ্মা সেতু নির্মাণের সময় মানুষের মাথা নিয়ে গুজব ছড়ানোর মামলায় রাজশাহীতে এক যুবকের পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। একইসঙ্গে তাকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আলাদা দুটি ধারায় মঙ্গলবার রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জিয়াউর রহমান এ রায় দিয়েছেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত যুবকের নাম মো. রাজিব (২১)। রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার বখতিয়ারপুর হাজিপাড়ায় তার বাড়ি। আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগছে- ফেসবুকে এ রকম গুজব ছড়ানোর অভিযোগে দুর্গাপুর থানা পুলিশ রাজিবকে গ্রেপ্তার করেছিল। এ নিয়ে ২০২০ সালের ৮ অক্টোবর রাজিবের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা করে পুলিশ।

এই মামলায় আসামি নিজের দোষ স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পরে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মঙ্গলবার আদালত মামলার রায় ঘোষণা করলেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতের কাঠগড়ায় হাজির ছিল। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ইসমত আরা জানান, একটি ধারায় আদালত আসামিকে দুই বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। জরিমানার অর্থ অনাদায়ে আরও ছয় মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড। আরেকটি ধারায় তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং তিন লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানার এই তিন লাখ টাকা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড।

SHARE