যেনতেনভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার ইচ্ছে নেই : প্রধানমন্ত্রী

163

গণধ্বনি ডেস্ক : আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারি জোট ‘প্রহসনের নির্বাচন’ করে ক্ষমতায় যেতে চায়- ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেনের অভিযোগের জবাবে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, এমন কোনো আকাঙ্ক্ষা নেই যে যেনতেনভাবে ক্ষমতায় আসতে হবে। বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) দুপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এফবিসিসিআই আয়োজিত ব্যবসায়ী সম্মেলনে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জনগণ ভোট দেবে, যাকে দেবে তারাই ক্ষমতায় আসবে। আমার জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে যদি ক্ষমতায় আসতে পারি আলহামদুলিল্লাহ। যদি না পারি কোনো অসুবিধা নেই।

তিনি বলেন, আমরা চাই নির্বাচনটা শান্তিপূর্ণ হোক। আপনাদের কাছ থেকে একটা সহযোগিতা চাই, আজ যে সুন্দর-শান্তিপূর্ণ পরিবেশটা আছে, সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশ রেখেই যেন নির্বাচনটা হয়।

বিএনপি-জামায়াতে আমলে ব্যবসায়ীদের দুর্ভোগের কথা তুলে শেখ হাসিনা বলেন, ‘হাওয়া ভবন’ তৈরি করে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ‘যেভাবে চাঁদা আদায় করা হয়েছিল’ তারও অবসান ঘটেছে।

তিনি বলেন, ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করবে। সরকার হিসেবে দায়িত্ব ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি করা।

‘আপনাদের জন্য যে ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি করেছি, এখনতো আর বলতে পারবেন না যে, কেউ হাওয়া ভবন খুলে সব ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে থাবাথাবি করছে যে, কিছু করতে গেলেই ভাগ দিতে হবে। অন্তত আমরা সেটা করি না, করবো না।’

বাস্তবায়নাধীন মেগাপ্রকল্পগুলোর কথা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, এতোগুলো কাজ হাতে নিয়েছি। কোনো দিক বাকি রাখি নাই। সব দিকেই উন্নয়ন করে যাচ্ছি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ এমন একটি দল যার হাতে দেশের প্রতিটি খাতের উন্নয়নের রূপরেখা রয়েছে।

নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে শেখ হাসিনা বলেন, নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আমাকে আরেকবার সুযোগ দিন আপনাদের সেবা করার। হাতে নেওয়া কাজগুলো যেন সম্পন্ন করতে পারি।

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি সফিউল ইসলাম মহিউদ্দিনের সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শেখ হাসিনার বেসরকারি খাত বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, আইসিসির সভাপতি মাহবুবুর রহমান, বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি মীর নাসির, এমসিসিআইয়ের সভাপতি নিহাত কবীর, সাবেক সভাপতি রোকেয়া আফজাল রহমান, গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মাইকেল ফোলি, মাইক্রোসফট বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী সোনিয়া বশীর কবির, সিটি গ্রুপের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান, বিএসআরএম স্টিলের চেয়ারম্যান আলী হুসেন আকবর আলী, বিজিএমইএ’র সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান, সাবেক সভাপতি আনোয়ার-উল-আলম চৌধুরী পারভেজ, এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুপালী চৌধুরী, মোহাম্মদী গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবানা হক, বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর প্রমুখ।

এছাড়া বিভিন্ন গ্রুপ অব কোম্পানিজের মালিক, দেশি ও বহুজাতিক কোম্পানির শীর্ষ ব্যবস্থাপকরা উপস্থিত ছিলেন।

SHARE