রাজশাহীতে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের গণঅনশন

38

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের রাজশাহী মহানগর ও জেলা কমিটির নেতাকর্মীরা সাতদফা দাবিতে গণঅনশন কর্মসূচি পালন করেছেন। শনিবার বেলা ১১টা থেকে নগরীর সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে গণ অনশন শুরু করেন তারা। পরে সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ও সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন জুস পান করিয়ে অনশন ভাঙান।

সাম্প্রদায়িক সহিংসতা বন্ধসহ সরকারি দলের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজশাহীতে এই গণঅনশন কর্মসূচি পালন করা হয়। তাদের দাবিগুলো হলো- সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন, বৈষম্য বিলোপ আইন প্রণয়ন, দেবোত্তর সম্পত্তি সংরক্ষণ আইন প্রণয়ন, জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠন, অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন যথাযথ বাস্তবায়ন, পার্বত্য শান্তিচুক্তি ও পার্বত্য ভূমি কমিশন আইনের যথাযথ বাস্তবায়ন এবং সমতলের আদিবাসীদের জন্য পৃথক ভূমি কমিশন গঠন।

অনশন ভাঙিয়ে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সারা জীবনের সাধনা একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশটা আমাদের সকলের। এখানে সকল ধর্মের মানুষ নিজ নিজ ধর্ম পালন করেন। আপনারা কখনও নিজেদের ছোট মনে করবেন না। আমি সব সময় আপনার সঙ্গে আছি এবং আগামীতেও থাকব।

অনশন কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের রাজশাহী মহানগরের সভাপতি ড. সুজিত সরকার। প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেন কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনীল কুমার সরকার। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের নগরের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের নগরের সভাপতি শরৎচন্দ্র সরকার প্রমুখ।

SHARE