বড়াইগ্রামে এমপি’র বাধায় খুলে গেলো সেবা গ্রহিতাদের পথ

41

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রামে উপজেলা মৎস্য অফিসে অপরিকল্পিত ও অবৈধভাবে কক্ষ নির্মাণে বাধা দিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস। জন সাধারণের চলাচলের পথ বন্ধ করে প্রশিক্ষণ কক্ষ নির্মাণ করায় প্রতিবাদ করেন তিনি। পরে এই অপরিকল্পিত ও অবৈধ নির্মাণ কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেন তিনি। এ সময় উপস্থিত জন সাধারণের দাবির প্রেক্ষিতে সংসদ সদস্য ওই নির্মাণ কাজ ভেঙ্গে ফেলার নির্দেশ দিলে নির্মাণ শ্রমিকরা তা তাৎক্ষণিকভাবে ভেঙ্গে ফেলেন। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলা কৃষি অফিসার শারমিন সুলতানা জানান, উপজেলা পরিষদের সীমানার মধ্যে দ্বিতল অফিস ভবন রয়েছে। যেখানে কৃষি, মৎস্য, আনসার-ভিডিপি ও মহিলা বিষয়ক কার্যালয় রয়েছে। ভবনের উত্তর দিকের গেট দিয়ে ঢুকে বারান্দা ব্যবহার করে সেবা গ্রহিতারা সেবা গ্রহণের জন্য চলাচল করতো। কিন্তু উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে ও উপজেলা প্রকৌশলীর কারিগরী সহযোগিতায় ওই প্রবেশ মুখ ও বারান্দা আটকে দিয়ে ইট দিয়ে কক্ষ নির্মাণ করা হচ্ছিলো। বিষয়টি সংসদ সদস্যের সরেজমিনে নজরে আসলে তিনি এই নির্মাণ কাজের প্রতিবাদ করেন ও তা ভেঙ্গে ফেলার নির্দেশ দেন। এ সময় সংসদ সদস্যের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. সিদ্দিকুর রহমান পাটোয়ারী, বনপাড়া পৌর মেয়র কেএম জাকির হোসেন, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস মিয়াজি, জোয়াড়ি ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা কামাল, বড়াইগ্রাম কেন্দ্রীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি অমর ডি কস্তা সহ কৃষি ও মৎস্য অফিসে আসা সেবা গ্রহিতারা।

কৃষি অফিসে প্রণোদনা নিতে আসা একাধিক সেবা গ্রহিতারা জানান, এমপি মহোদয় জনগণের সেবক এটা প্রমাণিত হলো। এই পথ বন্ধ করলে এই ভবনের ৪টি সরকারী দপ্তর থেকে সেবা গ্রহিতারা সেবা নিতে দুর্ভোগ পোহাবে এমনটি চিন্তা করে এই নির্মাণ কাজে বাধা দেন তিনি। এমপি’র সিদ্ধান্ত জন বান্ধব ও প্রশংসনীয় বলে মন্তব্য করেন তারা।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছা. মারিয়াম খাতুন জানান, চলাচলের পথ বন্ধ করে কক্ষ নির্মাণের কাজ করাটা আসলেই উচিত হয়নি।

SHARE