শিবগঞ্জে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কর্মবিরতি

42

সাজিদুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ: জনবল কাঠামো ও নিয়োগবিধি বাস্তবায়নসহ পাঁচ দফা দাবীতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জে কর্মবিরতি অব্যাহত রেখেছে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারী কল্যাণ পরিষদ। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের মতো চলেছে তাদের অর্ধদিবস কর্মবিরতি।

এর আগে সোমবার সকাল ৮টা থেকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে অর্ধদিবস কর্মবিরতি পালন করে। পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচী অনুযায়ী তারা এ কর্মবিরতি পালন অব্যহত রেখেছে। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এ কর্মসূচী চলবে। কর্মবিরতি পালন করায় অফিসে সেবা নিতে আসা সাধারণরা বিড়ম্বনায় পড়েছে।

জানা গেছে, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সঠিক পদমর্যাদা না থাকায় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার সঠিক লক্ষ্যে বাংলাদেশ এখনো পৌঁছাতে পারেনি। তাই দেশের যেকোনো কঠিন দূর্যোগ মোকাবিলার জন্য দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন-২০১২ এর আলোকে প্রস্তাবিত জনবল কাঠামো ও নিয়োগবিধি বাস্তবায়ন, জেলা ত্রাণ ও পুর্ণবাসন কর্মকর্তা (ডিআরআরও) পদের আপগ্রেডেশন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) পদ আপগ্রেডেশন, সচিবালয়ের ন্যায় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের কর্মচারীদের পদনাম পরিবর্তন এবং দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সব শূন্যপদ/পদোন্নতি/চলতি দায়িত্ব নিয়োগের মাধ্যমে পূরণের এ পাঁচটি যৌক্তিক দাবি নিয়ে উক্ত অধিদপ্তরের সংযুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারী কল্যাণ পরিষদ গত ৮/১০ বছর ধরেই সুশৃঙ্খল আন্দোলন করে আসছে।

শিবগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম বলেন, দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন ২০১২ এর আলোকে জনবল কাঠামো এবং নিয়োগবিধি বাস্তবায়নে কার্যকর পদক্ষেপ গৃহীত না হওয়ায় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা সূচনালগ্ন হতে সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন ও ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে আসছে। আইন পাশ হওয়ার ১০ বছর অতিবাহিত হলেও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের বিভিন্ন পদ আপগ্রেডেশন ও নতুন পদ সৃষ্ট না হওয়া এবং বিভিন্ন পদ শূন্য থাকায় মাঠ পর্যায়ের কাজ কর্মে স্থবিরতা নেমে এসেছে। ফলে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মনে চরম হতাশা বিরাজ করছে। তিনি আরো জানান, এই আন্দোলন সফল না হওয়া পর্যন্ত আমরা আমাদের কর্মবিরতি কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক সেটা বাস্তবায়ন করবো।

SHARE