মেয়র লিটনের নেতৃত্বে বিশাল বর্ণাঢ্য বিজয় মিছিল

203

স্টাফ রিপোর্টার : ১৪ দল রাজশাহীর সমন্বয়ক, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের অন্যতম কার্যনিবাহী সদস্য, নগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে বিশাল বর্ণাঢ্য মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মিছিলে মহানগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের হাজার হাজার মানুষ অংশ নেন। মিছিলে মানুষের ঢলে পরিণত হয় রাজশাহী। আর পুরো মিছিল ছিল স্লোগানে স্লোগানে মুখর ছিল।
মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বেলা ১১টায় নগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে বর্ণাঢ্য বিজয় মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে সাহেববাজার জিরোপয়েন্ট হয়ে মনিচত্বর হয়ে রাজশাহী কলেজের সামনে দিয়ে জাদুঘরের মোড় ঘুরে সোনাদিঘি হয়ে পুনরায় সাহেববাজার হয়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিলের সামনে ছিল জাতীয় ও আওয়ামী লীগের দলীয় পতাকা। তার পেছনে ছিল ব্যান্ড দল। বাদ্যের তালে তালে এগোতে থাকে বিজয় মিছিলটি। জাতীয় পতাকা হাতে অনেকে মিছিলে অংশ নেন। নারীদের পরণে ছিল লাল-সবুজের শাড়ি ও পোশাক। স্লোগানে স্লোগানে মুখর ছিল পুরো মিছিলটি। ‘তোমার আমার ঠিকানা, পদ্মা-মেঘনা-যমুনা; ‘তুমি কে আমি কে, বাঙালি বাঙালি; ‘শেখ হাসিনার মার্কা, নৌকা মার্কা; শেখ হাসিনার সালাম নিন, নৌকা মার্কায় ভোট দিন; লিটন ভাইয়ের সালাম নিন, নৌকা মার্কায় ভোট দিন; ৩০ তারিখ সারাদিন, নৌকা মার্কায় ভোট দিন;-ইত্যাদি নানা স্লোগানে মুখর ছিল বিজয় মিছিলটি।
বিজয় মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহীন আকতার রেনী, মুক্তিযোদ্ধা মীর ইকবাল, মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, মাহফুজুল আলম লোটন, সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, নিঘাত পারভীন, সৈয়দ শাহাদত হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, রেজাউল ইসলাম বাবুল, নাইমুল হুদা রানা, সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ সরিফুল ইসলাম বাবু, মহানগর যুবলীগের সভাপতি রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন বাচ্চু, ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, সাধারণ সম্পাদক জেডু সরকারসহ মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগসহ অন্যান্য অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সহ-সভাপতি ডা. আনিকা ফারিহা জামান অর্নার নেতৃত্বে বিশাল সংখ্যক ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিজয় মিছিলে যোগ হন। এ সময় মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি রকি কুমার ঘোষসহ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আজকের এই দিনে পাকিস্তানি সেনাবাহিনী পরাজিত হয়ে মাথা নত করে আত্মসমর্পন করেছিল, অস্ত্র জমা দিয়েছিল। আজকের দিনে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল, আমরা বিজয় অর্জন করেছিলাম। আজকে সেই আনন্দের দিন।
মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, সোনার বাংলা গড়ার যে স্বপ্ন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু দেখেছিলেন, তাঁরই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি দেশকে উন্নয়নের শিখরে নিয়ে যাচ্ছেন। সেই মুহুূর্তে নানান চক্রান্ত চলছে। সেই চক্রান্ত বানচাল করে আগামী ৩০ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবারো ক্ষমতায় আসবেন ইনশাল্লাহ।
মিছিল শুরুর আগে দলীয় কার্যালয়ের পাশে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পনের সময় নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সমাজসেবী শাহীন আকতার রেনীসহ আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

SHARE