বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ অভিন্ন: লিটন

13

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশ এক, সমার্থক, অভিন্ন। বাংলাদেশকে জানতে হলে বঙ্গবন্ধুকে জানতে হবে। আবার বঙ্গবন্ধুকে জানলে বাংলাদেশকে জানা হয়ে যাবে।’

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের রাজশাহী মহানগর ইউনিট কমান্ড আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। সোমবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত রাজশাহী জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভায় নগরীর বীর মুক্তিযোদ্ধারা অংশগ্রহণ করেন।

সভায় খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, স্বাধীনতার পর দেশকে গড়ার মাত্র ৩ বছর ৮ মাস সময় পেয়েছিলেন বঙ্গববন্ধু। এই অল্প সময়ের মধ্যেই দেশকে গড়ার বিভিন্ন কাজের সূচনা করেছিলেন তিনি। একসাথে প্রায় ৩৭ হাজার প্রাইমারি স্কুল জাতীয়করণ করেন। শেল কোম্পানির কাছ থেকে বিভিন্ন গ্যাসক্ষেত্র ক্রয় করেন বঙ্গবন্ধু। সেই গ্যাসক্ষেত্রগুলো থেকে এখনো গ্যাসের জোগান পাচ্ছি।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের রাজশাহী মহানগর ইউনিট কমান্ডের প্রাক্তন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মো. আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে সভায় মূল আলোচক ছিলেন বঙ্গবন্ধু পরিষদের রাজশাহী মহানগরের সভাপতি প্রফেসর নুরুল আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপিকা জিনাতুননেসা তালুকদার, কবিকুঞ্জ রাজশাহীর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর রুহুল আমিন প্রামাণিক, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল ও ন্যাপ কমিউনিস্ট পার্টির রাজশাহী জেলার সমন্বয়ক বীর মুুক্তিযোদ্ধা সাইদুল ইসলাম। সভা সঞ্চালনা করেন সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম মুক্তিযোদ্ধ একাত্তরের নগরের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল।

SHARE