সারাদেশে স্থানীয় ইস্যু নিয়ে কৃষকদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান বাদশার

5

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : পানিসহ কৃষিভিত্তিক যেকোন অধিকার বুঝে নিতে নিজেদের এলাকায় গড়ে ওঠা বিভিন্ন ইস্যু ও দাবি নিয়ে জাতীয় কৃষক সমিতির নেতৃত্বে কৃষকদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসনে বাদশা এমপি। তিনি বলেছেন, ‘কৃষকেরা ঐক্যবদ্ধ থাকলে কোন শক্তিই তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করতে পারবে না।’

শনিবার সকালে যশোরের আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। জাতীয় কৃষক সমিতি ও বাংলাদেশ খেতমজুর ইউনিয়নের খুলনা বিভাগীয় কমিটি যৌথভাবে এই সভার আয়োজন করে। সভায় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ স্থানীয় কৃষক সংগঠকদের বিভিন্ন বক্তব্য ও মতামত লিপিবদ্ধ করেন।

সভায় ওয়ার্কার্স পার্টির প্রধানতম নেতা ও রাজশাহী-২ আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, ‘আমার নির্বাচনি এলাকার পাশের একটি এলাকা গোদাগাড়ীতে দুই আদিবাসী কৃষক ধানের জমিতে পানি না পেয়ে আত্মহত্যা করেছে। এই খবর আপনারা সকলেই জানেন। আমি নিজে সরেজমিনে সেখানে একাধিকবার গিয়ে সেই কৃষকদের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছি। সাহস দিয়েছি। সঠিক বিচার নিশ্চিত করার জন্য তাদের আইনি সহযোগিতাও দিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘এ ঘটনা যেদিন ঘটলো- তার পরের দিন খবরের কাগজে এটি প্রকাশিত হয়েছে। পঞ্চগড় থেকে নাটোর; সব এলাকাতেই আমাদের আদিবাসীরা আছেন। এই খবরে তারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে গেল। রাস্তায়-রাস্তায় মিছিল শুরু হয়ে গেল। সেই মিছিলের পথ দেখানোর দায়িত্ব ছিল আমাদের। কোথায় পুলিশের ভয়, কোথায় গ্রেফতারের ভয়- সব কিছু উপেক্ষা করে তারা রাজশাহী ডিসি অফিস ঘেরাও করল। জাতীয় কৃষক সমিতি সেদিন তাদের সমর্থন দিয়ে পাশে দাঁড়ালো। এটিই হচ্ছে রাজনীতি! আদিবাসীরা সেদিন অনুভব করেছিল- জাতীয় কৃষক সমিতিই কেবল তাদের সাথে আছে।’

উপস্থিত কৃষক সংগঠকদের উদ্দেশে ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, ‘আপনাদের কথাগুলো আমরা মন দিয়ে শুনেছি। গুরুত্বসহকারে সেসব লিপিবদ্ধও করেছি। আমি কৃষক সমিতির নেতৃবৃন্দকে বলবো, দেশের উত্তর-দক্ষিণ, পূর্ব-পশ্চিম কোন এলাকায় কি ইস্যু নিয়ে কাজ হবে এ বিষয়ে জেলায়-জেলায় বৈঠক হবে। আমরা আশাবাদী, আগামী শীতের আগেই আমাদের কাজ শুরু করবো।’

সভায় জাতীয় কৃষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি মাহমুদুর রহমান মানিক, ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সদস্য ও সংসদ সদস্য অ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, কেন্দ্রীয় সদস্য ও সাবেক ছাত্রনেতা দিপঙ্কর সাহা দিপুসহ কৃষক সমিতি ও বাংলাদেশ খেতমজুর ইউয়নের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

SHARE