নগরীতে প্রতারক চক্রের দুই নারীসহ পাঁচজন গ্রেফতার

125

স্টাফ রির্পোটার : রাজশাহী মহানগরীতে নারী দিয়ে পরিকল্পিতভাবে ফাঁসিয়ে অর্থ আদায় চক্রের পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ। এদের মধ্যে দুজন নারীও আছেন। রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) সদস্যরা শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরীর ডিঙ্গাডোবা এলাকার এক বাড়ি থেকে তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতার পাঁচজন হলেন- ডিঙ্গাডোবা এলাকার মো. মনিপ (২৭), কবির হোসেন খিচ্চু (৩৩), মো. মুন্না (৩৫), মুন্নার স্ত্রী হানিফা খাতুন (৩১) এবং পবার ডাইংয়ের হাট এলাকার ফরিদা বেগম (৪০)। নগর ডিবি পুলিশের উপকমিশনার আরেফিন জুয়েল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গত ২৬ মে হানিফা খাতুন এক ভাঙারি ব্যবসায়ীকে ফোন করে জানান, তার স্বামী ওষুধ কোম্পানীতে চাকরি করেন। তিনি ডিঙ্গাডোবা ব্যাংক কলোনী এলাকায় ভাড়া থাকেন। তারা ভাড়া বাসার কিছু পুরাতন জিনিসপত্র বিক্রি করে রাজশাহী থেকে দ্রুতই চলে যেতে চান। তাই এসব কেনার জন্য তিনি ওই ভাঙারি ব্যবসায়ীকে বাসায় ডাকেন।

সরল বিশ্বাসে ওই ব্যবসায়ী বাসায় গেলে তাকে আটকে রাখা হয়। প্রতারক চক্রের সদস্যরা হানিফার সাথে ওই ব্যবসায়ীর জোরপূর্বক আপত্তিকর ছবি তোলেন। এরপর তিন লাখ টাকা দাবি করেন। পরে ৫০ হাজার টাকায় দফারফা হয়। ওই ব্যবসায়ী তার কাছে থাকা নগদ ৪ হাজার টাকা দিয়ে মুক্তি পান। পরে ধারদেনা করে আসামিদের আরও ৩০ হাজার টাকা দেন। পরবর্তীতে তিনি ডিবি পুলিশের কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ দেন।

পরে ওই ব্যবসায়ী বাকি ১০ হাজার টাকা দেওয়ার নামে আসামিদের অবস্থান নিশ্চিত হন। এরপর পুলিশ তাকে ওই বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে পুলিশ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নেওয়া ১০ হাজার টাকা ও ৫টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। সবার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হয়েছে।

SHARE