কারিগরি শিক্ষাকে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে : মেয়র লিটন

45

স্টাফ রিপোর্টার: ইংরেজি শিক্ষার গুরুত্ব তুলে ধরে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ‘ইংরেজি এখন একটা টুল হয়ে গেছে। যে বিভাগেই পড়ুন না কেন, ইংরেজি বিষয়টা পড়তে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো যেন এটা নিশ্চিত করে। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে এসে ইংরেজি বাদ দেওয়ার সুযোগ নেই।’

রাজশাহীর বেসরকারি বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। শিক্ষামন্ত্রী দর্শন এবং সাহিত্য পড়ার ওপর গুরুত্ব দিয়ে বলেন, ‘সকল শিক্ষার্থীর সাহিত্য এবং দর্শনও পড়া উচিত। কারণ একজন মানুষের সাহিত্যের বোধ থাকা দরকার। আর দর্শন জানা থাকলে তা সত্যিকার অর্থে এগিয়ে নিতে সাহায্য করে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। বক্তব্যে মেয়র বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জেলা জেলায়, এমনকি উপজেলা পর্যায়ে উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করে দিয়েছেন। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে শুধু শিক্ষাগ্রহণ নয়, মানসম্মত শিক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে। বর্তমান সরকার কারিগরি শিক্ষার উপর গুরুত্ব দিয়ে বিভিন্ন কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেছে। কারিগরি শিক্ষার অনেক বেশি মূল্য রয়েছে। কারিগরি শিক্ষার মাধ্যমে জনগোষ্ঠীকে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করা যাবে। দক্ষ হলে বিদেশেও চাকরির অনেক সুযোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে সবাইকে গুরুত্ব দিতে হবে।

বৃহস্পতিবার রাজশাহী নগরীর খড়খড়ি এলাকায় নির্মাণাধীন স্থায়ী ক্যাম্পাসে এই সমাবর্তন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে সমাবর্তন বক্তা ছিলেন সাবেক সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী ও সংসদ সদস্য আসাদুজ্জামান নূর।, সাবেক ছাত্রনেতা ও সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শেখর ও ইউজিসি সদস্য ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টিবোর্ডের চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান খান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর সাইদুর রহমান খান, মাগুরা-১ আসন আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ওসমান গণি তালুকদার প্রমুখ।

সমাবর্তনে নয়টি বিভাগের সাড়ে তিন হাজারের বেশি গ্র্যাজুয়েট অংশ নেন। রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য মো. আবদুল হামিদের পক্ষে এতে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষামন্ত্রী। সমাবর্তন অনুষ্ঠানে দুপুরে তিনি অনন্য কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে ‘চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল’ এবং নয়জন শিক্ষার্থীকে ‘ভাইস চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল’ দেন।

SHARE