শহীদ দুলাল এর শাহাদাতবার্ষিকী পালন

144

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ‘জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিটি আসনই গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিটি আসনকে গুরুত্ব দিয়ে আগামী নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। নৌকার বিজয় ছিনিয়ে আনতে হবে।’ গতকাল বুধবার সকালে রাজশাহী কলেজে শহীদ দুলাল এর শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত তিনি এসব কথা বলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, স্বাধীনতার পর গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় অনেক তরুণ নিজের জীবন উৎসর্গ করেছে। তাদের মধ্যে দুলাল অন্যতম। তিনি আরো বলেন, ১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথমবার ক্ষমতায় এসে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা শুরু করেছিলেন। তাঁরই হাত ধরে এখন বাংলাদেশ বিশে^র অনন্য উচ্চতায় পৌছে গেছে। আগামীতে উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় আনতে হবে। জানা গেছে, ১৯৯০ সালে গণঅভ্যুত্থানের বিজয় মিছিলে গুলিবর্ষণে নিহত রফিকুল ইসলামের দুলালের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শহীদ দুলালের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। মেয়র এএএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের নেতৃত্বে রাজশাহী কলেজে শহীদ দুলালের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পন করা হয়। এ সময় তাঁর স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। রাজশাহী কলেজ শাখা ছাত্রলীগের এ পুষ্পর্স্তবক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্যানেল মেয়র-১ ও ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, সাত নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, সাবেক ছাত্রনেতা হবিবুর রহমান বাবু, শফিকুল ইসলাম শফিক, মহানগর বাংলাদেশ জাসদের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক, রাজশাহী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নূর মোহাম্মদ সিয়াম, নাইমুল হাসান নাঈম প্রমুখ। এরআগে সাবেক ছাত্রনেতাদের পক্ষ থেকে শহীদ দুলালের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পন ও তাঁর স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এ সময় প্যানেল মেয়র-১ ও ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাজ্জামান আসাদ, ওয়াকার্স পার্টির মহানগর সভাপতি লিয়াকত আলী লিকুসহ অন্যান্য সাবেক ছাত্রনেতারা উপস্থিত ছিলেন।

SHARE