বড় ব্যবধানে জিতলো ভারত

8

গণধ্বনি ডেস্ক : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে তৃতীয় ম্যাচ খেলতে নেমে জয়ের দেখা পেল ভারত। আফগানিস্তানকে ৬৬ রানে হারিয়ে কোহলিদের ঝুলিতে যোগ হলো ২ পয়েন্ট। শুরুতে ব্যাট করে রোহিত-রাহুলের রেকর্ড গড়া জুটির সুবাদে মাত্র ২ উইকেটে ২১০ রানের পাহাড় জমা করে ভারত। জবাবে ৭ উইকেট হারিয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৪৪ রানেই থামে আফগানিস্তান।

বড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১৩ রানেই দুই ওপেনারকে হারায় আফগানরা। পরপর দুই বলে ফিরেছেন মোহাম্মদ শাহজাদ (০) ও হযরতুল্লাহ জাজাই (১৩)। এরপর পাল্টা আক্রমণ চালানোর চেষ্টা করলেও ১০ বলে ১৯ রান করে ফেরেন রহমতউল্লাহ গুলবাজ।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় তারা। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ৩৮ বলে ৫৭ রান তুলে শুধু পরাজয়ের ব্যবধানই কমান মোহাম্মদ নবী ও করিম জানাত। ৫৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলা দলকে তারা দুজনে টেনে নেন ১২৬ রান পর্যন্ত। অবশ্য তারও আগেই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় আফগানিস্তান। শেষের দিকে ২২ বলে করিম জানাতের ঝড়ো ৪২ রানে শুধু হারের ব্যবধানই কমেছে। আফগান অধিনায়ক নবী ৩২ বলে সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেন। করিম ২২ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন।

ভারতীয় বোলারদের মধ্যে শামি সর্বোচ্চ ৩ উইকেট পেলেও দুর্দান্ত বল করেন ২০১৭ সালের পর টি-টোয়েন্টিতে সুযোগ পাওয়া স্পিনার রবীচন্দ্রন অশ্বিন। তিনি ৪ ওভারে মাত্র ১৪ রান দিয়ে ২টি উইকেট তুলে নেন।

এর আগে টস হেরে শুরুতে ব্যাট করে রোহিত-রাহুলের রেকর্ড শতরানের জুটির পর ঝড় তুলে হার্দিক পাণ্ডিয়া-রিশাব পন্থ। তাদের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে বিশ্বকাপের বর্তমান আসরের সর্বোচ্চ ২১০ রানের স্কোর গড়ল ভারত।

ব্যাট করতে নেমে রোহিত শর্মা আর লোকেশ রাহুলের ব্যাটে ভারত পেয়েছে উড়ন্ত সূচনা। পাওয়ার প্লে’র প্রথম ৬ ওভারে বিনা উইকেট ৫৩ রান তুলেছে ভারত। এগারোতম ওভারে ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন রোহিত শর্মা। ৭ চার ও ১ ছক্কার সাহায্যে ৩৭ অর্ধশতক করেন তিনি।

পরের ওভারেই দলীয় ১০০ পেরিয়ে যায় ভারত। এরপর ব্যক্তিগত হাফ-সেঞ্চুরি করেন লোকেশ রাহুল। ৪চার ও ২ ছক্কার সাহায্যে ৩৫ বলে অর্ধশত রান করেন রাহুল। ১৫তম ওভারে করিম জানাতের বলে মোহাম্মদ নবীর হাতে ধরা পড়েন রোহিত শর্মা। অসাধারণ ব্যাট করা রোহিত ৪৭ বলে ৮টি চার ও ৩টিট ছক্কায় ৭৪ রান করেন। ভারত ১৪০ রানে ১ উইকেট হারায়। আরেক ওপেনার রাহুলও দুর্দান্ত ব্যাট করেন। এই ডানহাতি শেষ অবধি ৬৯ রানে থামেন। তিনি ৪৮ বলে ৬টি চার ও ২টি ছক্কায় ৬৯ করে গুলবাদিন নায়েবের বলে বোল্ড হন।

দুই ওপেনার বিদায় নিলেও তৃতীয় উইকেট জুটিতে ২১ বলে ৬৩ রানের ঝড়ো ইনিংস জোগাড় করেন ঋষভ পন্থ ও হার্দিক পান্ডিয়া। পন্থ ১৩ বলে ১ চার ও ৩ ছক্কায় ২৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। আর ১৩ বলে ৩৫ রানের হার না মানা ইনিংস খেলা পান্ডিয়া ৪টি চার ও ২টি ছক্কা হাঁকান।

ভারতীয় একাদশ:

রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), সূর্যকুমার যাদব, রিশাভ পান্ত, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, শার্দুল ঠাকুর, মোহাম্মদ শামি, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, জাসপ্রিত বুমরাহ।

আফগানিস্তান একাদশ:

হজরতউল্লাহ জাজাই, মোহাম্মদ শাহজাদ, রহমানুল্লাহ গুরবাজ, নাজিবুল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ নবি (অধিনায়ক), শরফুদ্দিন আশরাফ, গুলবাদিন নাইব, রশিদ খান, করিম জানাত, নাভিন-উল-হক, হামিদ হাসান।

SHARE