উন্নয়নের ছোঁয়া সবখানে পৌঁছে গেছে : খাদ্যমন্ত্রী

19

স্টাফ রির্পোটার : খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাহাত্তরের সংবিধানে অস্তর্ভুক্ত করেছিলেন ধর্ম, বর্ণ, জাতি গোষ্ঠী নির্বিশেষে সকলের সমান অধিকার থাকবে। শেখ হাসিনার সরকার সেটাই নিশ্চিত করে চলেছে। এ সময় উন্নয়নের ছোঁয়া সবখানে পৌঁছে গেছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

শুক্রবার নিয়ামতপুর উপজেলার স্থায়ী মঞ্চে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের মাঝে প্রণোদণা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন ।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, শিক্ষার জন্য যত রকম প্রণোদনা দেয়ার দরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার তার সব কিছু দিয়ে যাচ্ছে। শিক্ষার্থীদের মাদক মুক্ত থাকার আহবান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, মাদক ও বাল্যবিবাহ সমাজ উন্নয়নের অন্তরায়। এটা থেকে দূরে থাকতে হবে, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ছেলে মেয়েদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে দেশের উন্নয়নে অবদান রাখতে হবে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কৃষককে প্রণোদণা দিচ্ছে। সারের অভাব নেই। নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেওয়ার পাশাপাশি বীজ ও কৃষি উপকরণ দিচ্ছে। এর ফলে আমাদের কৃষিতে বিপ্লব ঘটেছে। দেশে খাদ্যের অভাব নেই।

কৃষক প্রণোদনা নিয়ে যদি কৃষি কাজে তা ব্যবহার না করে তবে সেটা হবে রাষ্ট্রীয় অপচয়। উৎপাদন কম হলে বিদেশ থেকে চাল আমদানির প্রয়োজন হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রকৃত প্রান্তিক কৃষকের হাতে প্রণোদণা পৌঁছে দিতে হবে। সেটা করতে না পারলে উৎপাদন বাড়ানো কঠিন হয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যয়নরত ১৭০ জন শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষা অনুদান, প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত ৩ শত জন কৃষকের মাঝে সরকারি প্রণোদনার চেক বিতরণ এবং ২৪ জন দুস্থ নারীর মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়।

পরে মন্ত্রী পল্লী উন্নয়ন সঞ্চয় ব্যাংক নিয়ামতপুর শাখার দ্বিতল ভবনের উদ্বোধন করেন।

নিয়ামতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়া মারিয়া পেরেরার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নিয়ামতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ আহম্মেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আইউব হোসেন মন্ডল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাদিরা বেগম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সহ-সভাপতি ঈশ্বর চন্দ্র বর্মন ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হাসান বিপ্লব বক্তব্য রাখেন।

SHARE