বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

37

স্টাফ রির্পোটার : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শাহ্রিয়ার আলম এমপি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুদ্ধ বিধ্বস্ত একটি দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিলেন। তিনি সদ্য স্বাধীনতা প্রাপ্ত একটি দেশের মানুষের মুখে খাবার তুলে দিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। তিনি ক্ষুধা ও দারিদ্র মুক্ত সোনার বাংলা গঠনের স্বপ্ন দেখেছিলেন। শত বাঁধা-বিপত্তি পেরিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সেই সোনার বাংলা গঠন করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী আজ বিকেলে রাজশাহীর চারঘাট উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ১০টি রাস্তা ও ১৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পিতার দেখানো স্বপ্নের পথে যোগ্য নেতৃত্ব দান করে বাংলাদেশকে আজকের পর্যায়ে নিয়ে এসেছেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ পরিস্থিতি সামাল দিতে যেখানে গোটা পৃথিবী হিমসিম খাচ্ছে সেখানে এ রকম একটা পরিস্থিতিতেও আমাদের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা ধারাবাহিকভাবে অব্যাহত রয়েছে। বর্তমানে পৃথিবীতে জননেত্রী শেখ হাসিনার মত নেতৃত্ব বিরল।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশকে আরও সামনে নিয়ে যেতে হলে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব আমাদের অত্যন্ত দরকার। একটি দেশে শুধু সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলেই উন্নয়ন হয় না সাথে সাথে যোগ্যতা সম্পন্ন নেতার প্রয়োজন রয়েছে। সেকারণেই বাংলাদেশের সামনে যে সুন্দর ভবিষ্যত রয়েছে সে জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই।

অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বিদ্যমান করোনা পরিস্থিতিতে সবাইকে সচেতন থাকার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, স্বাস্থ্যবিধি সঠিকভাবে মেনে চলার ক্ষেত্রে আমরা এখনো অনীহা প্রকাশ করছি। অনেকেই মাস্ক পরিধান করছি না। এটা করলে চলবে না।

তিনি বলেন, কোভিডকালে আমরা অনেককে হারিয়েছি, অনেক চেনা মুখ আমাদের ছেড়ে চলে গেছে। সাধারণ সর্দি-কাশি মনে করে এখনো অনেকে কোভিডকে গুরুত্ব দিচ্ছে না। এ সময় তিনি সকলকে অত্যন্ত গুরুত্বসহকারে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান।

এর আগে প্রতিমন্ত্রী পরানপুর হাটে নির্মিত দুটি মার্কেট ও এম এ হাদী কলেজে নির্মিত একটি ৪ তলা একাডেমিক ভবনের উদ্বোধন করেন।

পরানপুরে মার্কেট উদ্বোধন শেষে প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোভিড পরিস্থিতি সামাল দেয়ার সাথে সাথে উন্নয়ন কর্মগুলো সঠিকভাবে করতে সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। আমাদেরকে অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে সঠিক পরিকল্পনায় বর্তমান উন্নয়ন কাজগুলো করতে হবে। প্রত্যেককে নিজ নিজ দায়িত্ব বুঝে সঠিকভাবে কাজ করতে হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা যে কাজগুলি হাতে নিয়েছি তা ঠিকভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে কিনা তা দেখার দায়িত্ব জনগণের রয়েছে। এ প্রকল্পগুলোতে কতটা ইট-বালি লাগবে তা জানার দায়িত্ব আপনাদের রয়েছে। তিনি বলেন, বড় ধরণের কোনো বিপদ না হলে গৃহীত প্রকল্পগুলো শেষ হওয়ার একটা নির্দিষ্ট সময়সীমা আছে। সে সময়ের মধ্যেই শেষ করতে হবে।

তিনি বলেন, অপরিকল্পিতভাবে পুকুর খনন ও বাড়ি-ঘর নির্মাণ করায় পরানপুর এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। এটা বর্তমানে এখানকার বড় রকমের একটা সমস্যা। এ সময় তিনি জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ^াস প্রদান করেন। তিনি বলেন, বরেন্দ্র এলাকায় বিলের জলাবদ্ধতা যত দ্রুত সম্ভব নিরসন করা হবে।

SHARE