১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্টের শহীদদের স্মরণে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের আয়োজনে আলোচনা সভা

25

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : ১৫ই আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারবর্গ সহ সকল শহীদ এবং ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত শহীদদের স্মরণে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ রাজশাহীর আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার দুপুরে এ্যাডভোকেট বার ভবনে আয়োজিত আলোচনা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন।

বক্তৃতাকালে মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আওয়ামী লীগ বিরোধী একটি ক্ষেত্র তৈরি করে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পেছনে ছিল দেশি-বিদেশী চক্র। ১৫ আগস্টের পূর্বে বঙ্গবন্ধুকে বারবার সতর্ক করা হলেও তিনি কখনোই বিশ^াস করেননি যে, বাঙালিরা তাকে হত্যা করতে পারবে। বাঙালি জাতির প্রতি বঙ্গবন্ধুর এতোটাই বিশ^াস ছিল।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু হত্যায় সাজাপ্রাপ্ত যেসব আসামী এখনো বিদেশে পালিয়ে আছে, তাদের দেশে ফিরে এনে রায় কার্যক্রমের দাবি জানাচ্ছি। ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্ট হামলায় পেছনে যারা ছিল, জীবিত বা মৃত যাই হোক না কেন, কমিশন গঠন করে তাদের সকলের নামের তালিকা জাতির সামনে তুলে ধরার দাবি জানাচ্ছি।

মেয়র আরো বলেন, দেশের স্বাধীনতাকে মুছে ফেলতে চেয়েছিল খুনিচক্র। খুনিচক্রের সেই অপচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। সকল চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, আরো এগিয়ে যাবে।

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য ও সম্মিলিত আইজীবী সমন্বয় পরিষদ রাজশাহীর আহবায়ক এ্যাডঃ মোঃ ইয়াহিয়া সভা ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন। বক্তব্য দেন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য ও সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক এ্যাড. একরামুল হক, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির কেন্দ্রীয় সদস্য ও সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ এ্যাড. ইব্রাহিম হোসেন, গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির সভাপতি এবং রাজশাহীর বার এর সাবেক সভাপতি আলহাজ¦ এ্যাড. লোকমান আলী, সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের সাবেক আহবায়ক এ্যাড. মোজাফফর হোসেন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. আসলাম সরকার, এ্যাড. সিরাজী শওকত সালেহী এলেন, এ্যাড. এন্তাজুল হক বাবু, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাসরীন আক্তার মিতা। সভাটি সঞ্চালনা করেন এ্যাড. রাশেদ উন নবী।

SHARE