রাজশাহীতে শতভাগ আসনে যাত্রী নিয়ে চলবে গণপরিবহন

4

স্টাফ রির্পোটার : বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় বুধবার (১১ আগস্ট) রাজশাহী থেকে শতভাগ আসন নিয়ে বাস, ট্রেনসহ সকল গণপরিবহন চলাচল শুরু করবে। এ ক্ষেত্রে অর্ধেক টিকিট বিক্রি হবে অনলাইনে এবং বাকি অর্ধেক কাউন্টারে পাওয়া যাবে। আসন ফাঁকা না রাখলেও যাত্রীদের মাস্ক পরার বিষয়টি নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন গণপরিবহন মালিকরা।
ইতোমধ্যেই রাজশাহীর থেকে ঢাকা রুটে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। রাজশাহী স্টেশনের তথ্য ও অনুসন্ধান কেন্দ্রের অফিসার মনিরা পারভিন মুক্তি বলেন, বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে ৯টি আন্তঃনগর ট্রেন ও ৩টি মেইল-কমিউটার ট্রেন চলাচল করবে। যে ৯টি আন্তঃনগর ট্রেন চলবে- বনলতা এক্সপ্রেস, পদ্মা এক্সপ্রেস, তিতুমির এক্সপ্রেস, সাগরদাড়ী এক্সপ্রেস, বরেন্দ্র এক্সপ্রেস, ঢালারচর এক্সপ্রেস, টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেস, বাংলাবান্ধা এক্সপ্রেস ও মধুমিতা এক্সপ্রেস। যে ৩টি মেইল ট্রেন চলবে- মহানন্দা এক্সপ্রেস, ঢাকা এক্সপ্রেস, উত্তরা এক্সপ্রেস।
এছাড়াও তিনি আরো জানান, ট্রেনের শতভাগ টিকিটের মধ্যে অর্ধেক অগ্রিম টিকিট বিক্রি হচ্ছে কাউন্টার ও অর্ধেক টিকিট বিক্রি অনলাইনে। কাউন্টারে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে।
তিনি জানান, কোনো প্রকার ভাড়া বাড়ানো হচ্ছে না। সব অগ্রিম টিকিট যাত্রার পাঁচদিন আগে ক্রয় করতে পারবেন। অনলাইনে ক্রয়কৃত টিকিট ফেরৎ দেওয়া যাবে না। কমিউটার ট্রেনের টিকিট যথারীতি নির্দিষ্ট বক্স কাউন্টার থেকে দেয়া হচ্ছে। আসনবিহীন টিকিট বিক্রয় বন্ধ থাকবে। ট্রেনে ভ্রমণেচ্ছুক যাত্রীদের নিজ নিজ টিকিট নিশ্চিত করেই কেবল ট্রেনে ভ্রমণের জন্য অনুরোধ করা হলো। টিকিটবিহীন কোনো যাত্রী স্টেশনে প্রবেশ বা ট্রেনে ভ্রমণ করতে পারবেন না। মাস্ক ব্যতিত কোনো যাত্রীকে স্টেশনে প্রবেশ বা ট্রেনে ভ্রমণ করতে দেওয়া হবে না বলে জানান তিনি।
পবা উপজেলা থেকে ট্রেনের টিকিট নিতে কাউন্টারে এসেছেন সুমন চৌধুরী। তিনি ১২ আগস্ট ঢাকা যাবেন। বনলতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সকাল ৭ টার একটি এসি টিকিট ক্রয় করেন। তিনি জানান, আগের মত টিকিটের মূল্য অপরিবর্তিত রয়েছে।
নগরীর শালবাগান এলাকার সাকিব তার অসুস্থ মাকে নিয়ে চিকিৎসার উদ্দেশ্যে ঢাকা যাবেন। তিনি ১৩ আগস্ট পদ্মা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিকাল ৪ টার কেবিনের দুইটি টিকিট ক্রয় করলেন ১৫৩৪ টাকা দিয়ে। তিনি জানান, অনলাইনে কেবিনের টিকিট না পাওয়ার জন্য কাউন্টারে এসেছেন। টিকিটের দাম ঠিক আছে। রাজশাহীর ঢাকা বাস টার্মিনালে গিয়ে দেখা যায়, দূরপাল্লার পরিবহনের কাউন্টারগুলো খোলা হয়েছে। দেশ ট্রাভেলস এর কাউন্টারে মো. মাসুদ রানা নামের একজনকে দেখা যায় অগ্রিম টিকিট দিচ্ছেন।
মাসুদ রানা জানান, পরিচিত অনেকে ফোনে টিকিট বুক করছেন, আবার অনেকে এসে টিকিট নিচ্ছেন। তিনি আরো জানান, বুধবার (১১ আগস্ট) রাজশাহী থেকে ঢাকাগামী ১৫ টি বাস সকাল ৬টা থেকে রাত ১২ টা পর্যন্ত চলাচল করবে। ভাড়া পূর্বের নিয়মে নেয়া হচ্ছে। সরকারি নির্দেশনা অনুসারে, রাজশাহী থেকে ঢাকা ননএসি ৪৮০ টাকা আর এসি ১ হাজার টাকা।
রাজশাহীর হানিফ পরিবহন কাউন্টারেও দেখা যায়, অনেকে এসে অগ্রিম টিকিট নিচ্ছেন। নগরীর নওদাপাড়ার যাত্রী আব্দুস সবুর বলেন, বুধবার (১১ আগস্ট) সকালে ঢাকা যাব, সে হিসাবে টিকিট নিয়েছি। তিনি জানান একটি ননএসি টিকিট ৪৮০ টাকা দিয়ে নিলাম, কাউন্টারে আগের নিয়মে ভাড়া নিচ্ছে।
অপরদিকে শাহমখদুম বিমান বন্দরের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জানান, ৬ আগস্ট থেকে অভ্যন্তরীণ রুটে বিমান চলাচল শুরু হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে ৬ টা পর্যন্ত রাজশাহী থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে নভোএয়ার ও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স এর মোট পাঁচটি ফ্লাইট চলাচল করছে।
তিনি আরো জানান, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বিমানবন্দরে কঠোর বিধি-নিষেধ অনুসরণ করা হচ্ছে। মাক্স ছাড়া কোনো যাত্রীকে এয়ারপোর্টে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না।
উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার এ বছরের ৫ এপ্রিল থেকে ধাপে ধাপে বিধিনিষেধ দিয়ে আসছে। এর পাশাপাশি এবার স্থানীয় প্রশাসনও বিভিন্ন এলাকায় বিশেষ বিধিনিষেধ জারি করেছিল। কিন্তু তারপরও করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় ১ জুলাই থেকে দুই সপ্তাহ সারা দেশে কঠোর বিধিনিষেধ জারি করা হয়। ইদের সময় আট দিনের বিরতি দিয়ে আবার কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়, যা ১০ আগস্ট শেষ হচ্ছে।

SHARE