রাবির পুকুরের মাটি পরিবহনের সময় ট্রাক্টর উল্টে শ্রমিকের মৃত্যু

16

স্টাফ রির্পোটার : রাতের আঁধারে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পুকুরের মাটি পরিবহনের সময় ট্রাক্টর উল্টে তার নিচে চাপা পড়ে মেরাজ (২৬) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (২৫ এপ্রিল) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন নগরীর চৌদ্দপাই এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মেরাজ নগরীর উপকণ্ঠ কাটাখালী থানার কিসমত কুখন্ডীর বাসিন্দা দুলালের ছেলে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয় পুকুর খনন প্রকল্পের ইজারাদার মাসুদ রানার গাড়ির হিসাব সংরক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন।

জানা গেছে, রাবির পুকুর থেকে খননকৃত মাটি নিয়ে যাওয়ার সময় রাস্তার গর্তে চাকা পড়ে ট্রাক্টরটি উল্টে যায়। এ সময় ট্রাক্টরে থাকা মেরাজ চাপা পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মতিহার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম সিদ্দিকুর রহমান জানান, এ ঘটনায় চালক পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। রাতেই মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ রামেক হাসপাতালে মর্গে নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য ও কৃষি প্রকল্পের উপদেষ্টা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা এবং প্রকল্পের ইজারাদার মাসুদ রানার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাদের ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, গত বছর মার্চে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ শামসুজ্জোহা হলের পূর্ব পাশের প্রায় ১০ বিঘা জমিতে পুকুর তৈরির জন্য টেন্ডার হয়। বিশ্ববিদ্যালয়-সংলগ্ন বুধপাড়া এলাকার মাসুদ রানা দরপত্রে সর্বোচ্চ দর দিয়ে চার বছরের জন্য পুকুরটির ইজারা পান।

কৃষি প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে, দরপত্রের শর্ত অনুযায়ী খননের পর পুকুরের পাড় বাঁধাই করে অতিরিক্ত মাটি পাশেই রাখতে হবে। কিন্তু নিয়ম বহির্ভূতভাবে প্রতিনিয়ত মাটি নিয়ে যাচ্ছিলেন ইজারাদার। রাতের আঁধারে মাটি নিয়ে ফেরার পথে ট্রাক্টর দুর্ঘটনায় মেরাজ মারা যান।

SHARE