লকডাউনেও খুলেছে রাজশাহীতে দোকানপাট

42

স্টাফ রিপোর্টার : সর্বাত্মক লোকডাউনের মধ্যেই বৃহস্পতিবার রাজশাহী নগরীর সাহেববাজার আরডিএ মার্কেটের ব্যবসায়ীরা দোকান খুলেছেন। এর আগে সকালে দোকান খুলে দেয়ার দাবিতে রাজপথে আন্দোলনের ঘোষণা দিলেও তাঁরা আন্দোলনে না গিয়ে দোকান খুলতে শুরু করেন।

অন্যদিকে ব্যবসায়ী নেতারা সকালে জেলা প্রশাসক আবদুল জলিলের সাথে দেখা করে দোকান খোলার অনুমতি চান। জেলা প্রশাসক তাঁদের আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে বলেন। তারপরও ব্যবসায়ীরা দোকান খোলেন। দুপুর আড়াইটার দিকেও আরডিএ মার্কেট ও কাপড়পট্টির অনেক দোকান খেলা দেকা গেছে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, দীর্ঘদিন ধরে তাদের দোকানপাট বন্ধ। রমজান মাসের এই সময়টা তাদের ব্যবসার মৌসুম। এই মাসে ব্যবসা করে তারা সারাবছর সংসার চালান। ঈদেরও আর বেশি দিন নেই। তাই এই সময়ে ব্যবসা করে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চান তারা।

এ দিন অল্প কিছু ক্রেতাকেও মার্কেটে ঘুরতেও দেখা যায়। কাপড়ের দোকান থেকে শুরু করে অন্যান্য দোকানও খোলা ছিল। রাজশাহী আরডিএ মার্কেট এলাকা ও তার আশেপাশের মার্কেট ও ফুটপাতের দোকনগুলো খুলে দেন ব্যবসায়ীরা।

রাজশাহী সাহেব-বাজার আরডিএ মার্কেটের এক দোকানের কর্মচারী নাম না প্রকাশ করে জানান, মাহাজন আজকে ডেকেছে। আমারা দোকান খুলেছি। আমাদের চলতে হয় মাহাজনের সাথে। তাই দোকান খুলতে হয়েছে। এর বেশি কিছু বলতে পারবো না। ঐশি কালেশশনের মালিক ইয়াসিন আলী বলেন, ক্রেতা শূন্য বাজার। লকডাউনেও আমাদের ঋণ নিচ্ছে ব্যাংক। শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাই দোকান খুলেছি।

এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা প্রশাসক অব্দুল জলিল বলেন, রাজশাহী আরডিএ মার্কেট সকালে ব্যবসায়ীরা খুলে দেয়। এরপর তাদের নেতৃবৃন্দদের সাথে আমার মিটিং হয়। তারা আমার সাথে কথা দেয় আগামী ২৮ তারিখ পর্যন্ত তারা দোকান বন্ধ রাখবে। সরকারি বিধিনিষেধ মেনে চলবে। আমার কোন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করছি না। আজকে তারা নিজেরাই বন্ধ করে দিবে। আগামী কাল থেকে মার্কেট কেউ খুলবে না।

SHARE