রাজশাহীতে তাপদাহে অস্থির প্রাণিকুল

27

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহীতে অগ্নিঝরা তাপদাহে প্রকৃতি যেন তপ্ত নিঃশ্বাস ছাড়ছে। রোদের প্রখরতায় মাথা দিয়ে ঘাম ঝরছে অনবরত। কাঠফাটা গরমে হাঁসফাঁস করছে প্রাণিকুল। প্রতিদিনিই বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যেন পাল্লা দিয়ে বাড়ছে তাপমাত্রা। গত বুধবার চলতি মৌসুমে রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা এবং দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। এদিন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৩৯ ডিগ্রী সেলসিয়াস বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে রাজশাহীর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ওঠানামা করছে। এতে অস্থির হয়ে পড়ছে জনজীবন, বিশেষ করে শহুরে মানুষেরা দুর্বিষহ জীবন-যাপন করছেন। ঘরে-বাইরে কোথাও স্বস্তি নেই। বৃষ্টিহীন আবহাওয়ায় ঘরের চেয়ে বাইরের অবস্থা আরও বেশি ভয়াবহ।

আবহাওয়াবিদরা বলছেন, ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রাকে ‘মৃদু’, ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসকে ‘মাঝারি’ এবং ৪০ ডিগ্রি ছাড়িয়ে গেলে তাকে তীব্র তাপপ্রবাহ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সেই হিসাবে গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে রাজশাহীতে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছিল। গতকাল এর তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় তা এখন মাঝারি থাকা থেকে তীব্র তাপপ্রবাহে রূপ নিতে শুরু করেছে। রাজশাহী সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বর্তমানে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী কদিনের মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই।

জানতে চাইলে রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রহিদুল ইসলাম বলেন, বুধবার রাজশাহীতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিন রাজশাহীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এছাড়া সকাল ৬টায় বাতাসের আদ্রতা ছিল ৯৪ শতাংশ এবং বেলা সাড়ে ৩টায় ছিল ৩৬ শতাংশ।

SHARE