বাইডেনের নির্বাহী আদেশের পরেই গুলিতে নিহত ১

22

অনলাইন ডেস্ক: আগ্নেয়াস্ত্রের যত্রতত্র ব্যবহার ঠেকাতে নতুন নির্বাহী আদেশ জারি করলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) হোয়াইট হাউসের সংবাদ বিবৃতিতে জানান, লাগাম টানা হবে দেশে উৎপাদিত ‘ঘোস্ট গান’ ক্রয়-বিক্রয়ে।

এ নির্বাহী আদেশ জারির পরপরই ওইদিনই বেলা আড়াইটার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের ব্রায়ান শহরে বন্দুকধারীর গুলিতে একজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ছয়জন।

আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর।

প্রেসিডেন্ট বলেন, দেশে আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতা এমন মাত্রায় গেছে যা মহামারিকেও হার মানায়।

এটি বিশ্ব পরিমণ্ডলে দেশের জন্য লজ্জাজনক। জারিকৃত নির্বাহী আদেশ অনুসারে, তথাকথিত আগ্নেয়াস্ত্র কমাতে কি উদ্যোগ গ্রহণ করা সম্ভব সেই পরিকল্পনা প্রণয়নে বিচার বিভাগকে ৩০ দিন সময় দেওয়া হয়েছে।

এরমধ্যে, ঘরোয়া পদ্ধতিতে বানানো অস্ত্রের তালিকা তৈরি করতে হবে।

‘ঘোস্ট গান’ হিসেবে পরিচিত অস্ত্রগুলোর সবচেয়ে বড় সুবিধা- তাতে কোনো সিরিয়াল নম্বর থাকে না। ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য প্রয়োজন পড়ে না লাইসেন্সের। এরফলে, ব্যবহারকারীকে শনাক্ত করা দুরূহ। অপরাধের ক্ষেত্রে এ অস্ত্রগুলোই সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। কংগ্রেসে আগ্নেয়াস্ত্র বিধিমালা বহুমুখী সংকটে পড়বে, এ কারণেই নির্বাহী আদেশ জারি করলেন প্রেসিডেন্ট।

ব্রায়ান শহরে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহতের ঘটনা সম্পর্কে পুলিশ জানায়, শহরের একটি শিল্প পার্কে অবস্থিত কেন্ট মুর ক্যাবিনেটস নামের একটি কারখানায় এক বন্দুকধারী এলোপাতাড়ি গুলি চালায়। গুলিতে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত ও চারজন আহত হন। এই চারজনের অবস্থা গুরুতর। এছাড়া এই ঘটনায় আরও দুজন আহত হন।

সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে আটক করে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তার নাম-পরিচয় জানানো হয়নি। তবে পুলিশ বলেছে, সন্দেহভাজন বন্দুকধারী ওই কারখানাটিতেই কাজ করতেন। গুলির এই ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে কী কারণে এই গুলির ঘটনা ঘটল, সে সম্পর্কে তদন্তকারীরা এখনো কিছু জানতে পারেননি।

SHARE