সবারই উচিত মুক্তিযুদ্ধকে জানা -জয়া আহসান

20

অনলাইন ডেস্ক : দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। একাধিক ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন এখন তিনি। এরইমাঝে সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে তার নতুন সিনেমা ‘অলাতচক্র’। ছবিটি পরিচালনা করেছেন হাবিবুর রহমান। এটিই তার প্রথম সিনেমা। কথাসাহিত্যিক আহমদ ছফার উপন্যাস অবলম্বনে এই সিনেমার প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া। ‘অলাতচক্র’ মুক্তি পেলো। সাড়া কেমন মিলছে? জয়া বলেন, ভালো ভালো মন্তব্য পাচ্ছি ছবিটি নিয়ে। এই সিনেমা আসলে মুক্তিযুদ্ধের দলিলও বটে।
সবারই উচিত মুক্তিযুদ্ধকে জানা। তাছাড়া এটি দেশের প্রথম থ্রিডি ছবি। এটি আমাদের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির সময় মুক্তি পেলো। সব মিলিয়ে ছবিটি বিশেষ। ছবিতে আপনি তায়েবা চরিত্রে কাজ করেছেন। অভিজ্ঞতা কেমন ছিলো? খুবই ভালো। আমি শুটিং করেছি একটি হাসপাতালে। আমার বেডের চারপাশে ছড়িয়ে ছিল অনেক গুটিবসন্তে আক্রান্ত রোগী। এর ভেতরে সাবধানে থেকে শুটিং করতে হয়েছে। যদিও ভয় কাজ করছিলো। এরকম অভিজ্ঞতা এই প্রথম হলো। এখন ব্যস্ততা কি নিয়ে আপনার? উত্তরে জয়া বলেন, পিপলু আর খানের ছবির শুটিং লকডাউনে শেষ করেছি। ছবিটি চলতি বছরের শেষ নাগাদ মুক্তি পাবে। এছাড়া ‘পেয়ারার সুবাস’ এবিং ‘বিউটি সার্কাস’ ছবি দুটো মুক্তির অপেক্ষায় আছে।
এর বাইরে কলকাতায় সৌকর্য ঘোষাল পরিচালিত ‘ওডিসি’র শুটিং করেছি। সামনে কলকাতায় ‘বিনিসুতোয়’ এবং ‘ঝরা পালক’ ছবি দুটি মুক্তি পাবে। ঢাকা ও কলকাতায় আরো কিছু সিনেমা নিয়ে কথা হচ্ছে। ব্যাটা বলে মিললে হয়তো করবো। তাহলে কলকাতা যাচ্ছেন শিগগিরই আবার? জয়া বলেন, সেটা এখনই বলতে পারছি না। তবে এদিকের কাজ গুলো গুছিয়ে নিতে চাই। তারপর কলকাতা যাবো। আবার ঝটিকা সফরেও যাওয়া হতে পারে।

SHARE