মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন বাদশা

195

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন রাজশাহী-২ আসনের প্রার্থী জননেতা ফজলে হোসেন বাদশা। তিনি আজ সোমবার বিকেল ৪টায় জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের, সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার ফরিদুল ইসলাম, ডিজিএজি রায়হান পারভেজের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে মনোনয়ন পত্র জমা দেন।

মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এমপি বাদশা বলেন,“বিএনপির সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন এটা প্রথম না। আমি ২০০২ সালের রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দিতামূলক নির্বাচনে জয়ী হয়েছিলাম। আমি জয়ী হবার পরেও, টেলিভিশনের পর্দায় ৬৬ হাজার ভোট দেখানোর পরেও দুই ঘন্টার মধ্যে ঢাকা থেকে নির্দেশ এসে সেই রায় পরিবর্তন করেছিল সেটা আপনারা জানেন। অর্থাৎ ২০০২ সালে আমি তাদেরকে পরাজিত করেছিলাম। ২০০৮ সালে আমি বিএনপি প্রার্থীকে পরাজিত করেছি। ২০১৪ সালে তারা নির্বাচনে আসে নাই। সে সময় তারা জঙ্গিবাদ এবং সন্ত্রাসের আশ্রয় নিয়েছিল। নির্বাচন বানচাল করে দেশে একটি অসাংবিধানিক সরকার প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিল। এখন যারা আবার ফিরে আসছে নির্বাচনে তারা সেই একই ব্যক্তি। যারা জঙ্গিবাদের সঙ্গে যুক্ত ছিল, সন্ত্রাসের সাথে যুক্ত ছিল, জামায়াতের অগ্নিসন্ত্রাসের সাথে যুক্ত ছিল, বাংলা ভাইয়ের মদদদাতা-আর্থিক সহায়তাকারী এবং সারা রাজশাহীর মানুষের নিরাপত্তাহীনতা জন্য মানুষ খুনের জন্য অর্থ যোগান দিয়েছিল সেই ব্যক্তিরা আমাদের বিরুদ্ধে নির্বাচনে আসছে।”

একইসময়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের উন্নয়নের ধারার প্রশংসা করে তিনি বলেন,“ মানুষ উন্নয়ন চায়, জঙ্গিবাদ চায় না। মানুষ এগিয়ে যেতে চায়, ভবিষ্যতের উন্নত বাংলাদেশ চায়। এখানে কোনও অগ্নিসন্ত্রাসের জায়গা হবে না।”

তিনি আরো বলেন,“আমার বিশ্বাস আমি সারাজীবন জনগনের সাথে কাজ করেছি। রাজশাহীর উন্নয়নের জন্য আমরা আরো কাজ করবো এবং জনগণ আমাদের পাশে আছে।”

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর রুহুল আমীন প্রামানিক, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কবি আরিফুল হক কুমার, বরেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ আলমগীর মালেক, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য এবং রাজশাহী মহানগর সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, কেন্দ্রীয় সদস্য জেলা সভাপতি রফিকুল ইসলাম পিয়ারুল, রাজশাহী মহানগর পার্টি সাধারণ সম্পাদক দেবাশিষ প্রমানিক দেবু, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হক তোতা, কেন্দ্রীয় সদস্য এবং রাজশাহী মহানগর সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য এন্তাজুল হক বাবু, রাজশাহী মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য আবু সাইদ, সাদেরুল ইসলাম, মহানগর পার্টির সদস্য আব্দুল মতিন, বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রীর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কেএএম জুয়েল, রাজশাহী মহানগর সভাপতি এএইচএম জুয়েল খান, সাধারণ সম্পাদক সম্রাট রায়হান, মাহমুদ মোরশেদ চুন্না, বাংলাদেশ যুব মৈত্রী জেলা সভাপতি মনিরুদ্দিন পান্না, মহানগর সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির, সাবেক কমিশনার মাহাতাব বাবু প্রমুখ।

SHARE