হাসপাতাল থেকে চুরি হওয়া শিশু মিলল আখক্ষেতে

211

গণধ্বনি ডেস্ক : পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে কৌশলে চুরি হওয়া নবজাত শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে ঈশ্বরদী-লালপুর সড়কের বেনারসি পল্লীর কাছে ভুতেরগাড়ি ইসলামপুর পাকারাস্তা সংলগ্ন আখক্ষেত থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, ইসলামপুর ভুতেরগাড়ি এলাকার প্রাইভেটকার চালক আব্দুল কাদের সোহান (৩৫) দুপুরে জুমার নামাজ শেষে নাটোরের লালপুর মহেশ্বর গ্রামে ভাইরার বাড়িতে যাওয়ার পথে রাস্তার পাশে আখক্ষেতের মধ্যে শিশুর কান্নার শব্দ শুনতে পান। পরে কাছে গিয়ে দেখেন একটি বাচ্চা আখক্ষেতের ভেতর পড়ে আছে। এ সময় তিনি স্থানীয় লোকজনকে নিয়ে আখক্ষেতের ভেতর থেকে বাচ্চাটি উদ্ধার করেন। পরে গরুর দুধ গরম করে শিশুটিকে খাইয়ে সুস্থ্য করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে এসে শিশুটির মা রোজিনার কোলে তুলে দেয়।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আসমা খান বলেন, শিশুটি সুস্থ আছে।

উল্লেখ্য, বুধবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার মুলাডুলি ইউনিয়নের বহরপুর গ্রামের রাশেদ আলীর স্ত্রী রোজিনা বেগমের (৩১) প্রসবব্যথা উঠলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। রাত ৯টার দিকে তিনি একটি মেয়ে শিশুর জন্ম দেন। দুই ঘণ্টা পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরে যান।

পরে অসুস্থবোধ করলে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৬টায় নবজাতকসহ তাকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আসমা খান তাকে চিকিৎসা দেন।

রোজিনার শয্যার পাশে ছিলেন তার পরিবারের এক সদস্য। তিনি একটি কাজে বাইরে যান। এ সময় দুর্বৃত্তরা কৌশলে অজ্ঞাত এক নারীর মাধ্যমে নবজাতককে চুরি করে নিয়ে যায়। আধাঘণ্টা পর প্রসূতির পরিবারের সদস্যরা শিশু চুরির বিষয়টি টের পান।

SHARE