দুর্গাপুরে টয়লেট নির্মাণ নিয়ে সংঘর্ষ, ইউপি সদস্যসহ আহত ৫

19

দুর্গাপুর প্রতিনিধি : দুর্গাপুরে বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মসজিদের টয়লেট নির্মাণকে কেন্দ্র করে দু পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ওই ঘটনায় এক ইউপি সদস্যসহ অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদেরে দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার মাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, কিসমত মাড়িয়া গ্রামের সোলাইমান আলী, নাজিম উদ্দিন, আশরাফুল ইসলাম বাবু, ফয়সাল আহম্মেদ ও ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত দুই দিন আগে উপজেলার মাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের মসজিদের টয়লেট নির্মাণ করা হয়। ওই নির্মাণকৃত টয়লেট মাড়িয়া গ্রামের আশরাফুল বাবু, ফয়সাল ও নাছিমসহ ৫ থেকে ৬জন ঘটনাস্থলে এসে তাদের জমিতে নির্মাণ করা হচ্ছে বলে দাবি করেন। এ সময় নির্মাণকৃত টয়লেটটি তাদের জমিতে করা হয়েছে দাবি করে ভাঙতে শুরু করেন।

পরে মাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আলাউদ্দিন ও স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল সালাম নির্মাণকৃত টয়লেট ভাঙতে বাধা প্রয়োগ করলে দু পক্ষের বাক-বিতান্ডার এক পর্যায়ে তূমুল সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

কিসমত মাড়িয়া গ্রামের মোজাহার আলী ফয়সাল অভিযোগ করে বলেন, বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা কিছু না জানিয়ে আমাদের বাপ-দাদার জমিতে জোর করে টয়লেট নির্মাণ করে। আমরা বাধা দিতে গিলে তারা আমাদের উপর হামলা চালিয়ে পিঁটিয়ে আহত করে ।

মাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ও মাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাসান ফারুক ইমাম সুমন জানান, দুদিন আগে বিদ্যালয়ের মসজিদের টয়লেট নির্মাণ করা হয়েছে। কিন্তু ওই জমি নিজেদের দাবি করে সকালের দিকে একটি এসে ভাঙচুর চালায়। এ সময় বিদ্যালয় ম্যনেজিং কমিটির সদস্যরা নিষেধ করায় তাদের উপরে হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

জানতে চাইলে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাশমত আলী বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়ে ছিল। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ওসি।

SHARE