বাঘায় প্রক্সি দিতে গিয়ে ধরা অপর শিক্ষার্থী!

146

বাঘা প্রতিনিধি : রাজশাহীর বাঘায় অন্যের হয়ে প্রক্সি পরীক্ষা দিতে গিয়ে ধরা খেয়েছে জ্যোতি খাতুন নামের এক ছাত্রী। রোববার প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার প্রথম দিন ইংরেজী পরীক্ষা দিতে গিয়ে ধরা খায় জ্যোতি খাতুন। উপজেলার চন্ডিপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, উপজেলার জয়জয়রাম আনন্দ স্কুলের ছাত্রী নুপুর খাতুনের হয়ে ওই কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশ নেয় স্থানীয় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী জ্যোতি খাতুন। তাকে সন্দেহ করে কর্তব্যরত শিক্ষক প্রবেশপত্র যাছাই বাছাই করলে ভূয়া প্রমানিত হয়। চন্ডিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব নজরুল ইসলাম বিষয়টি অস্বিকার করলেও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহিন রেজা ও কেন্দ্রের তদারকি কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ওই ছাত্রীকে বহিস্কার করে তার ইংরেজি পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। ভূয়া পরীক্ষার্থী জ্যোতি খাতুনের অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এবিএম সানোয়ার হোসেন বলেন, কেন্দ্র সচিব ঘটনার সাথে জড়িত রয়েছে বলে তিনি সন্দেহ করছেন। এর পরে এ ধরনের কর্মকান্ডে জড়িত থাকার প্রমান পেলে কেন্দ্র সচিবের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান এই শিক্ষা কর্মকর্তা।

SHARE