তানোরে সৌদি ফেরত গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু

42

তানোর প্রতিনিধি : রাজশাহীর তানোরে সৌদি ফেরৎ এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ওই গৃহবধুর নাম সুমি আক্তার (২৬), তিনি তানোর উপজেলার বিহারইল গ্রামের রুবেল হোসেনের স্ত্রী।

এবিষয়ে তানোর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষে মৃতের মায়ের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। সোমবার বিকালে ময়না তদন্ত শেষে মায়ের বাড়ি নিয়ামতপুর উপজেলার জাহিদপুর গ্রামে দাফন করা হয়েছে। রোববার সকালে তানোর থানা পুলিশ খবর পেয়ে গৃহবধুর স্বামীর ঘরে গলাই ফাঁস দেয়া ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা জানা গেছে, নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার আদমপুর গ্রামের আব্দুল জলিলের মেয়ে সুমির সাথে প্রায় ৫বছর আগে তানোর উপজেলার বিহারইল গ্রামের আনিকুলের ছেলে রুবেল হোসেন (৪০)’র বিয়ে হয়। বিয়ের ২বছর পর ওই গৃহবধু সৌদি আরবে গিয়ে ২বছর সেখানে কর্ম শেষে করোনার প্রভাবের কারনে গত বছর স্বামীর বাড়িতে ফিরে ঘর সংসার শুরু করেন।

গত ১মাস থেকে গৃহবধুকে সৌদি আরব যাওয়ার জন্য তার স্বামী চাপ দিয়ে আসলেও সন্তান না থাকা ওই গৃহবধু সৌদি যেতে অস্বীকার করে আসছিলেন। এনিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দন্দ চলে আসছিলো। রোববার ভোরে গৃহবধুর স্বামী ঘরে গলাই ফাঁস দিয়ে লাশ ঝুলে থাকতে দেখে গ্রামবাসীকে খবর দেয়।

তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাকিবুল হাসান বলেন, এঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়ে, ময়না তদন্ত শেষে লাশ মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি বলেন ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর রহস্য পরিস্কার হবে।

SHARE