২ বছর পূর্তি ও গণতন্ত্রের বিজয় দিবস উপলক্ষে নগর আওয়ামী লীগের প্রস্তুতি সভা

25

স্টাফ রির্পোটার : আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদের ২ বছর পূর্তি ও গণতন্ত্রের বিজয় দিবস উপলক্ষে সোমবার রাত ৮টায় কুমারপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সভাপতি ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন। সভা সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ডাবলু সরকার।

সভায় এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান সহ সকল ক্ষেত্রেই উন্নয়নমূলক কাজ সফলতার সাথে বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। দেশের জনগণ যা পূর্বে কখনও কল্পনাও করেন নি, সেই অকল্পনীয় উন্নয়ন করেছেন আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বেই হয়েছে। গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় আজ বাংলাদেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত হয়েছে। গণতন্ত্রের বিজয় দিবস তো আমরাই পালন করবো জনগণকে সাথে নিয়ে। যার সুফল আজ জনগণ দেখছে। দেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। জনগণের ক্রয় ক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদের ২ বছর পূর্তি ও গণতন্ত্রের বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় নগর আওয়ামী লীগের সকল স্তরের নেতা-কর্মীবৃন্দকে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অংশগ্রহন করার জন্য আহ্বান জানান।

মোঃ ডাবলু সরকার বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দেশের উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে দেশে আজ গণতন্ত্রের সু-বাতাস বইছে বলেই দেশে আজ উন্নয়নের মহাযজ্ঞ সাধিত হচ্ছে। তার দৃষ্টান্ত আজ দৃশ্যমান। স্বপ্নের পদ্মা সেতু সফল বাস্তবায়ন, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎক্ষেপন, কর্ণফুলি নদীর উপরে বঙ্গবন্ধু ট্যানেল, রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন। দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি ধরে রাখার স্বার্থে জননেত্রী শেখ হাসিনা’র হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদের ২ বছর পূর্তি ও গণতন্ত্রের বিজয় দিবসের আলোচনা সভায় নগর আওয়ামী লীগের সকল স্তরের নেতা-কর্মীবৃন্দকে স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে অংশগ্রহন করার জন্য আহ্বান জনান।

সভায় সংগঠনের দাপ্তরিক কাজে গতিশীলতা আনার লক্ষ্যে একটি ল্যাপটপ দপ্তর সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম বুলবুল ও উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে’র হাতে প্রদান করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, রাজশাহী মহানগরের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী কামাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা নওশের আলী, রেজাউল ইসলাম বাবুল, ডাঃ তবিবুর রহমান শেখ, যুগ্ম সম্পাদক মোস্তাক হোসেন, আহ্সানুল হক পিন্টু, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আসলাম সরকার, মীর ইসতিয়াক আহম্মেদ লিমন, কৃষি সম্পাদক মীর তৌফিক আলী ভাদু, দপ্তর সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম বুলবুল, প্রচার সম্পাদক দিলীপ কুমার ঘোষ, আইন সম্পাদক অ্যাড. মুসাব্বিরুল ইসলাম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক জিয়া হাসান আজাদ হিমেল, ত্রাণ ও সমাজকল্যান সম্পাদক ফিরোজ কবির সেন্টু, ধর্ম সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, বন ও পরিবেশ সম্পাদক রবিউল আলম রবি, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মকিদুজ্জামান জুরাত, শ্রম সম্পাদক আব্দুস সোহেল, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক ডাঃ ফ ম আ জাহিদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক পংকজ দে, উপ-প্রচার সম্পাদক সিদ্দিক আলম, কোষাধ্যক্ষ এ.বি.এম হাবিবুল্লাহ ডলার, সদস্য এনামুল হক কলিন্স, নজরুল ইসলাম তোতা, শাহাব উদ্দিন, অ্যাড. শামসুন্নাহার মুক্তি, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আব্দুল মান্নান, সৈয়দ হাফিজুর রহমান বাবু, আব্দুস সালাম, মজিবুর রহমান, ইসমাইল হোসেন, আলিমুল হাসান সজল, খায়রুল বাশার শাহীন. মোখলেশুর রহমান কচি, মাসুদ আহম্মেদ, কে.এম জামান জুয়েল প্রমুখ।

SHARE