তানোরে গরীবের চিকিৎসক ডাক্তার হান্নান মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত ৩০ বছর

61

তানোর থেকে সাইদ সাজু : তানোরে গরীবের চিকিৎসক ডাক্তার আব্দুল হান্নান মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন প্রায় ৩বছর। দীর্ঘদিনের রোগী দেখার অভিজ্ঞতার আলোকে তিনি দরিদ্র শ্রেনী থেকে শুরু করে সকল শ্রেনী পেশার মানুষের চিকিৎসা সেবা দিতে দিতে হয়ে উঠেছেন গরীবের ডাক্তার। ফলে, ছোট খাটো অসুস্থ্যতা নিয়ে এলাকার দরিদ্র শ্রেনী থেকে শুরু করে সকল শ্রেনী পেশার মানুষ আস্থা নিয়ে ছুটে যান অভিজ্ঞ চিকিৎসক খ্যাত আব্দুল হান্নান।

ঢাকার আইসিএইচ হাসপাতালে আরএমপি ফার্মাসিস্ট ও শিশু রোগের প্রশিক্ষন নেয়া ডাক্তার আব্দুল হান্নান ৩০ বছর ধরে চিকিৎসা দিতে দিতে মান সম্মত চিকিৎসক হিসেবে এলাকায় জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন। প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকা থেকে দরিদ্র শ্রেনীর পাশাপাশি সকল শ্রেনী পেশার শত শত মানুষ আসেন তার কাছে চিকিৎসা সেবা নিতে। তিনি প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত গোল্লাপাড়া বাজারস্থ্য নিজের ‘হক ফার্মেসী’ সংলগ্ন চেম্বারে বসে শতাধীক রোগীর চিকিৎসা প্রদান করছেন।

দীর্ঘদিন ধরেই তিনি ফ্রি’তেই রোগীদের এসব চিকিৎসা সেবা দিয়ে নিরবেই দরিদ্র শ্রেনী থেকে শুরু করে সকল শ্রেনী পেশার মানুষের কাছে আস্থা অর্জনের পাশাপাশি ভরসার ডাক্তার হিসেবে সুনাম অর্জনে সক্ষম হয়েছেন। রোগীদের যত্নসহকারে চিকিৎসা সেবা দেয়াটা তার কাছে এখন মানব সেবার সেবক হয়ে উঠেছেন। মানব সেবা দেয়া চিকিৎসক ডাক্তার আব্দুল হান্নান করোনা কালেও রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন হাসি মুখে। সকলের কাছে তিনি এখন গরীবের চিকিৎসক হিসেবে বেশ পরিচিতি লাভ করেছেন।

করোনা কালে তিনি নিজের জীবন বাজি রেকে হাসি মুখে নিরবে নিভৃতে চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন বিভিন্ন অসুস্থ্যতা নিয়ে তার কাছে ছুটে আসা রোগীদের। দিন দিন রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় এবং দোকানের খরচ হিসেবে রোগীদের কাছ থেকে এখন মাত্র ২০টাকা করে নিয়ে রোগী দেখছেন তিনি। তবে, সবার কাছে ওই ২০টাকাও নেন না, এখনো তিনি বেশীর ভাগ দরিদ্র রোগীকে ফ্রি চিকিৎসা দিচ্ছেন।

এলাকাবাসীরা বলছেন, দীর্ঘ প্রায় ৩০ বছরেরও বেশী সময় ধরে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন ডাক্তার আব্দুল হান্নান। তার এই দীর্ঘনিনের চিকিৎসা সেবা প্রদানে রোগীদের কাছ থেকে তার বিষয়ে কোন ধরনের অভিযোগ শোনা যায়নি বরং তার সুনাম রয়েছে অনেক। সেই সাথে রোগীরা বলছেন, ডাক্তার আব্দুল হান্নান রোগীদের সাথে যেমন সুন্দর ভাবে কথা বলেন তেমনি ভাবেই রোগীর সমস্যা শোনেন এবং খুব যত্ননিয়ে রোগীর সেবা প্রদান করেন। বিনয়ী সুলভ আচরনের এই চিকিৎিসক আছে বলেই আমরা খুব সহযেই যখন তখন ছোট খাটো অসুখে তার কাছে গিয়ে সেবা নিয়ে থাকি। রোগীরা আরো বলছেন, তার বিনয়ী সুলভ আচরনে রোগীরা অর্ধেকটাই সুস্থ্যতা বোধ করেন। ফলে, গ্রামের দরিদ্র শ্রেনী থেকে শুরু করে প্রায় সকল শ্রেনী পেশার মানুষের চিকিৎসা করতে করতে সকলের কাছে গরীবের সেবক হয়ে উঠেছেন ডাক্তার আব্দুল হান্নান।

SHARE