ত্রিশেও দাপুটে কেভিতোভা

58

অনলাইন ডেস্ক : একটা সময় কোর্টে তিনি ছিলেন সেরাদের একজন। কিন্তু গত কয়েকটা বছর খুবই খারাপ যাচ্ছে পেত্রা কেভিতোভার। চোটের সঙ্গে লড়াই করেও ধরে রেখেছেন নিজের প্রিয় র‌্যাকেটটি। সর্বশেষ এ বছরের প্রথম গ্র্যান্ডস্লাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বাদ যান। এবার করোনাকালে ইউএস ওপেনেও দেখাচ্ছেন দাপট। ৩০ বছর বয়সেও ছুটছেন আপন আলোয়। শুক্রবার জেসিকাকে সরাসরি সেটে হারিয়ে নিশ্চিত করেন শেষ ষোলো।

এদিকে এবারের মাঠটা এক প্রকার ফাঁকা জকোভিচের জন্য। বড় দুই তারকা রাফায়েল নাদাল ও রজার ফেদেরার নেই। তাতে সার্বিয়ান সুপারস্টারের শিরোপা জেতারও দারুণ সুযোগ। যদিও বাকিরাও কম যাচ্ছেন না। তার পরও এখন পর্যন্ত যেভাবে পারফর্ম করছেন জকো, আশাবাদী হওয়াই যায়। সর্বশেষ শুক্রবার আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে জার্মানির লেনার্ড স্ট্রফকে ৬-৩, ৬-৪, ৬-১ গেমে হারিয়েছেন তিনি। চতুর্থ রাউন্ডে জকোভিচের প্রতিপক্ষ স্পেনের পাওলো ক্যারেনো বুস্তা। শেষ ষোলোতে উঠতে হয়তো খুব বেশি বেগ পেতে হয়নি জকোকে। তবে সামনে পথ যে ক্রমে কঠিন হয়ে যাচ্ছে, সেটা ঠিকই টের পাচ্ছেন। অবশ্য জকো আত্মবিশ্বাসী, যেমনটা এদিন লেনার্ড দাঁড়াতে পারেনি তার সামনে, ‘আমার দিক থেকে এটা ছিল সেরা একটা পারফরম্যান্স, আসলে আমি তার সার্ভগুলো ভালোভাবে পড়তে পেরেছিলাম। আর দ্বিতীয় ও তৃতীয় সেট সত্যিই ভিন্ন একটা অনুভূতি জাগায়।’

একই দিন কঠিন লড়াই করেও হার মানেন সিসিপাস। ক্রোয়েশিয়ান কোরিচের কাছে পাঁচ সেটের যুদ্ধে শেষ পর্যন্ত হেরে যান এই গ্রিস সেনসেশন। তবে নারী এককে ফেভারিটরাই জয়ের হাসি হেসেছে। আর্থার অ্যাশে ইউক্রেনের মার্তাকে ৬-৩, ৬-৭ (৪-৭), ৬-২ গেমে হারিয়ে শেষ ষোলোর টিকিট কেটেছেন নাওমি ওসাকা।

SHARE