তফসিলের সিদ্ধান্ত ৪ নভেম্বর

173

অনলাইন ডেস্ক : আসছে ৪ নভেম্বর নির্বাচন কমিশনের বৈঠকে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদা। তিনি বলেন, ৪ নভেম্বর সিদ্ধান্ত হলে জাতির উদ্দেশে ভাষণে তফসিল ঘোষণ দেবো। তবে কবে তফসিল ঘোষণা বা জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন তিনি, তা জানাননি।

বৃহস্পতিবার (০১ নভেম্বর) বিকেলে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎকার শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

বিকেল ৩টা ৩৫ মিনিটে বঙ্গভবনে গিয়ে রাষ্ট্রপতিকে একাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি অবহিত করেন নুরুল হুদা।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, এটি জরুরি কোনো সাক্ষাৎ নয়। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে এটি অনানুষ্ঠানিক সাক্ষাৎকার। রাষ্ট্রপতিকে নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পর্কে অবহিত করা। তফসিল নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে কোনো আলোচনা হয়নি। তবে আমরা প্রস্তুত। আগামী সাতদিনের মধ্যে করতে পারি। রাষ্ট্রপতি আমাদের প্রস্তুতি নিয়ে সন্তুষ্ট। তফসিলের ব্যাপারে আমরা ৪ তারিখে মিটিং করবো। সেদিন সিদ্ধান্ত হবে।

বিএনপির গঠনতন্ত্র সংশোধনী গ্রহণ না করতে হাইকোর্টের নির্দেশনার বিষয়ে তিনি বলেন, হাইকোর্টের এটা আমরা পেয়েছি, এটা কমিশনে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবো।

সংলাপের শেষ দেখে তফসিল দেবেন কি-না- প্রশ্নে সিইসি বলেন, এগুলো নিয়ে সিদ্ধান্ত নিইনি।

সংলাপের কারণে নির্বাচন করার পরিকল্পনার কোনো পরিবর্তন আসবে কি-না প্রশ্নে তিনি বলেন, সংবিধানে নির্বাচন করার কথা যেভাবে বলা আছে, সেভাবে হবে।

তফসিলের খসড়ায় কোনো পরিবর্তন হবে কি-না এ বিষয়ে তিনি বলেন, খসড়া মনে মনে আছে, কমিশনের মাধ্যমে সেটা চূড়ান্ত হবে।

আপনারা কি এমন আস্থা তৈরি করেছন যে, সব দল অংশ নেবে নির্বাচনে- এ প্রশ্নে তিনি বলেন, আমাদের আস্থা আছে, বিশ্বাস আছে নির্বাচনে সব দল অংশ নেবে। তবে সব দল কি নির্বাচন কমিশনের প্রতি আস্থা রাখতে পারবে- এটা জানি না।

এদিকে, আগামী ৩ নভেম্বর (শনিবার) কমিশন বৈঠকে তফসিল নিয়ে আলোচনার কথা জানিয়েছিলেন ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেছুর রহমান। তবে ৪ নভেম্বরও (রোববার) আরেকটি বৈঠক হবে। যে বৈঠকে সিদ্ধান্ত চূড়ান্তের কথা সিইসি বলেছেন।

এক্ষেত্রে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণের পর বাংলাদেশ টেলিভিশন জাতির উদ্দেশে সিইসির ভাষণ রেকর্ড করবে। যে ভাষণে তফসিল ঘোষণা হবে। ভাষণ ৪ নভেম্বর কিংবা তারপরে যে কোনোদিন সন্ধ্যায় প্রচার করা হতে পারে।

SHARE