কমেছে সবজির দাম, কমেনি পেঁয়াজের ঝাঁজ

128

স্টাফ রিপোর্টার : বাজারের দুই সপ্তাহের ব্যবধানে কমতে শুরু হরছে শীতকালিন সবজির দাম। শীতের সবজি ফুলকপি, বাঁধাকপি, মুলা, শালগম, পালং শাক, মুলাশাক, সরিষা শাকের সরবরাহ বাড়ায় রাজশাহীর বাজারগুলোতে দাম কমেছে। তবে কমেনি পেঁয়াজের ঝাজ। শুক্রবার রাজশাহীর সাহেববাজার, লক্ষীপুর, কোটবাজারসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা যায়, খুচরা পর্যায়ে দুই সপ্তাহ আগে শিম, টমেটো, নতুন আলুর দাম কমলেও সপ্তাহের ব্যবধানে অপরিবর্তিত রয়েছে শীতের সবজি ফুলকপি, বাঁধাকপি, মুলা, শালগম, বরবটি, বেগুন, পেঁপে, মিষ্টি কুমড়ার দাম।

গত সপ্তাহের মতো বরবটির কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকা। ফুলকপি ও বাঁধাকপি আগের সপ্তাহের মতো ৩০-৩৫ টাকা পিস বিক্রি হচ্ছে। পেঁপেও ৩০টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৩৫-৪০ টাকা কেজি। মুলা পাওয়া যাচ্ছে ২৫-৩০ টাকার মধ্যে। করলা আগের মতো ৫০-৬০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে বাজারে মিশর থেকে আমদানি করা বড় আকারের পেঁয়াজের সরবরাহ বেড়েছে। বাজার ও মানভেদে এ পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৮০ থেকে ২০০ টাকা। তবে কমেনি মিয়ানমার ও দেশি পেঁয়াজের দাম। আগের মতো দেশি পেঁয়াজ ২২০-২৪০ টাকা এবং মিয়ানমারের পেঁয়াজ ১৯০-২০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, শীতের সবজির সরবরাহ বাড়ায় কিছু সবজির দাম কমেছে। এর মধ্যে সব থেকে বেশি কমেছে শিমের দাম। এখন দিন যত যাবে সবজির সরবরাহ তত বাড়বে। ফলে সবধরনের সবজির দাম শিগগির আরও কমবে।

তবে ক্রেতারা বলছেন, বাজারে সবধরনের সবজির পর্যন্ত সরবরাহ রয়েছে। শীতের কোনো সবজির অভাব নেই বাজারে। এ পরিস্থিতিতে সবধরনের সবজির দাম কমে যাওয়ার কথা। কিন্তু শিম ছাড়া কোনো সবজির দাম সেই তুলনায় কমেনি।

SHARE