গোদাগাড়িতে কমলা চাষে সফল কৃষক রাজেশ

245

গোদাগাড়ী প্রতিনিধি : বরেন্দ্রর লাল মাটিতে চাষ হয়েছে কমলা। ভালো ফলন এবং দাম পেয়ে খুশি কৃষক। রাজশাহীর গোদাগাড়ী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর জানায়, উপজেলা দেওপাড়া ইউনিয়নের ঈশ্বরীপুর, চৈতন্যপুরের কৃষক রাজেশ ৩ বিঘা জমিতে দেশীয় জাত বারি-১ কমলা চাষ করে। প্রতি বিঘায় ১২০ টি কমলার গাছ রয়েছে। প্রতি বিঘায় খরচ হয়েছে বিশ হাজার টাকা। কৃষক রাজেশ বলেন, জমি বর্গা নিয়ে অন্য ফসল চাষ করতে গিয়ে তেমন লাভ হয়নি। স্থানীয় উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা অতনু সরকারের পরামর্শ ও কারিগরি সহযোগিতায় দুই বছর আগে জমিতে কমলার চারা রোপণ করি। এরপর নিবিড় পরিচর্যার কারণে চলতি মৌসুমে প্রতিটি গাছে ব্যাপক ফুল ও ফল দেখা দেয়। জমি থেকেই কমলা ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছে ব্যবসায়ীরা। বাজারে দেশি কমলা ব্যাপক চাহিদা থাকার কারণে ১শ থেকে ১২০ টাকা কেজি দরে পাইকারি বিক্রি হচ্ছে। গত এক সপ্তাহে ৮ কেজি কমলা বিক্রি হয়েছে। রাজেশ আরো জানান, কমলার জমিতে মরিচের চাষ করে বাড়তি আয় হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে গোদাগাড়ী কৃষি কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম বলেন, এ অঞ্চলের মাটি দেশি ফল চাষের জন্য অত্যন্ত উপযোগী। আগ্রহী কৃষকদের কমলাসহ বিভিন্ন ফল চাষের উপর প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর। ঈশ্বরীপুর ব্লকের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তা অতনু সরকার বলেন, এসব এলাকা উঁচু হওয়ায় সেচের অভাবে একটি ফসলের পর পতিত থাকত। কিন্ত কৃষকরা জমিতে বছর জুড়েই মাল্টা, পেয়ারা, কমলাসহ বিভিন্ন ফল চাষ করায় সবুজ ও হলুদের সমাহার ঘটেছে। এ এলাকায় উৎপাদিত কমলা বিষমুক্ত হওয়ায় পুষ্টিগুণ পুরোটাই পাওয়া যায়। এছাড়াও কমলা খুবই সুমিষ্ট।

SHARE