মুন্সিগঞ্জে বাস-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে এক পরিবারের ছয় জনসহ নিহত ৯

93

গণধ্বনি ডেস্ক : ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের মুন্সীগঞ্জে বাসচাপায় মাইক্রোবাসের চালকসহ ৯ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে একই পরিবারের ছয় সদস্য রয়েছেন। গুরুতর আহত অবস্থায় কয়েকজনকে উদ্ধার করে ঢাকার হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মাওয়া কর্মরত ট্রাফিক ইন্সপেক্টর কাওসার-ই-আলম বলেন, গতকাল রাস্তার একপাশে কাজ চলছিল। তাই অন্যপাশ দিয়ে গাড়ি চলছিল। এ সময় বাসটির ডান পাশের সামনের চাকা ফেটে গিয়ে বাসটি মাইক্রোটির ওপর উঠে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

লৌহজং উপজেলার কনকশার থেকে মুদি দোকানি রুবেল হোসেনের বরযাত্রী যাচ্ছিল কেরানীগঞ্জের কামরাঙ্গীরচর। পথে মাইক্রোটিকে পিষে দেয় বাস। নিহতরা হলেন—বরের বাবা আব্দুর রশীদ ব্যাপারি (৬০), বোন লিজা (২২) ও লিজার মেয়ে তাবাসসুম (৪), ভাবি রুনা আক্তার (২২) ও তার ছেলে তাহসিন (৩) এবং প্রতিবেশী কেরামত আলী (৭০) মফিজুল (৬০) ও চালক বিল্লাল (২৮)। ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা মাইক্রোবাসের ভেতরে আটকে পড়া নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে। এ ঘটনায় আধাঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ ছিল। এসব তথ্য দিয়ে শ্রীনগর থানার ওসি হেদায়েতুল ইসলাম ভূইয়া জানান, লাশগুলো শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা হয়েছে। বাস ও মাইক্রোর চার যাত্রীকে আহতাবস্থায় ঢাকা পাঠানো হয়েছে। সেখানে রানু আক্তার (১২) নামে আরো একজন মারা গেছে। সে বরের মামাতো বোন। বাস ও মাইক্রো দুটি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। বেপরোয়া গতির বাসটি ওভারটেক করতে গেলে এ দুর্ঘটনা হয়। এতে মাইক্রোটি (ঢাকা মেট্রো চ- ১৫ ৫৫৬৬) দুমড়েমুচড়ে যায়। বাসের ড্রাইভার ও হেলপার পলাতক রয়েছে। হাঁসাড়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. আব্দুল বাসেদ জানান, স্বাধীন পরিবহনের বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ঢাকাগামী মাইক্রোবাসের ওপরে গিয়ে পড়লে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে সেনা সদস্যরাও উদ্ধার কাজে অংশ নেন। মহাসড়কটির উন্নয়ন কাজের সঙ্গে সেনাবাহিনী সম্পৃক্ত থাকায় দ্রুত আশপাশ থেকে ছুটে আসেন সেনা সদস্যরাও। মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি নিহতদের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে ও আহতদের চিকিত্সার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

বিয়ে বাড়িতে শোকের মাতম: কয়েক ঘণ্টা আগেও যেখানে ছিল আনন্দ আর উত্সব। সেখানে এখন শোকের মাতম। স্বজনদের বুকফাটা আর্তনাদে এলাকার বাতাস ভারি হয়ে উঠেছে। শত শত লোক ভিড় করছে।

SHARE