অভিযানে কমলো পেঁয়াজের দাম

185

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী নগরীতে জেলা প্রশাসনের অভিযান পরিচালনার পর কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। গতকাল রোববার সকালে ২৫০ থেকে ২৬০ টাকায় প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হলেও অভিযানের পর বিকেলে ২শ’ থেকে ২২০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। আজ আরও কমবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। সাহেব বাজারে অতিরিক্ত জেলা ম্যজিস্ট্রেট আবু আসলামের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ অদালতের অভিযানে সকল পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের আজ সোমবার থেকে ১৫০ থেকে ১৭০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রির নির্দেশনা দিয়েছেন জেলা প্রশাসন। গতকাল রোববার বিকেল পাঁচটা হতে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় সকল পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের আজ থেকে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এদিকে এক গুদামে অভিযান চালিয়ে ৩০০ বস্তা মজুদ পেঁয়াজ পাওয়া গেছে। এই মজুতদারের নাম হাসিবুল ইসলাম। তাকে প্রতিদিন ৫০ বস্তা করে পেঁয়াজ বিক্রির জন্য নিদের্শ দেওয়া হয়। অতিরিক্ত জেলা ম্যজিস্টেট আবু আসলামের নেতৃত্বে গতকাল রোববার সাহেব বাজারে এ অভিযান চালানো হয়। এসয় তিনি বলেন, আমাদের কাছে খবর ছিলো এখানে এক ধরনের সিন্ডিকেট পেঁয়াজ অমদানি করে তা মজুদ করছে। আমরা বাজার ঘুরে দেখেছি। রাজশাহীর বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ ভালো অবস্থায় আছে। আমরা কোনোক্রমেই মজুদ করতে দিবো না। তিনি আরও বলেন, বাজারে সকল খুচরা ও পাইকারি বাজারে ক্রয়পত্র দেখে আজ সোমবার থেকে ১৫০ থেকে ১৭০ টাকা কেজি দরে বিক্রির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বাজার মনিটরিং কর্মকর্তাকে প্রতিদিন বাজার মনিটরিংএর পাশাপাশি বাজারে ভ্রমামাণ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, এসময় সকল ব্যবসায়ীদের সঠিক দামে বিক্রি করার বিষয়ে বলা হয়। কোন ব্যবসায়ী যেন মানুষের উপর জুলুম করবেন না। বেশি দাম চাইলে কেউ পিঁয়াজ কিনবেন না। তিনি আরো জানান, এই অভিযান কাল থেকে নগরীর সকল বাজারে চলবে। কেউ বেশি দাবে বিক্রি করলে সেই ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। অভিযান পরিচালনার সময় অনেক অড়তদার আড়তে তালা লাগিয়ে পালিয়ে যায়। গতকাল রাজশাহী মহানগরীসহ এর উপকণ্ঠের বাজারগুলোতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সকালে পাইকারি বাজারে প্রতিকেজি দেশি পেঁয়াজ ২৩০ থেকে ২৪০ এবং আমদানি করা বিদেশি পেঁয়াজ ২২০ থেকে ২৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। খুচরা বাজারে বিক্রি হয়েছে দেশি ২৫০ থেকে ২৬০ এবং আমদানি করা বিদেশি ২৪০ থকে ২৫০ টাকায়। এই অবস্থায় বিকেলে সাহেব বাজারের পাইকারি ও খুচরা পেঁয়াজ বিক্রেতাদের প্রতিষ্ঠানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এদিকে, অভিযানের পর পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করায় ভোক্তাদের মাঝে স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে। তারা দর নিয়ন্ত্রণে বাজারে নিয়মিত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এ ব্যাপারে টিসিবি রাজশাহী আঞ্চলিক অফিস প্রধান প্রতাপ কুমার বলেন, দর নিয়ন্ত্রণে চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে ঢাকার মত রাজশাহীতেও খোলা বাজারে ৪৫ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু হতে পারে। কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আসার পর ঢাকার নির্দেশনা পেলেই তারা ট্রাক সেলের মাধ্যমে এখানে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করবেন।

SHARE