ঘূর্ণিঝড় বুলবুল : সেন্টমার্টিনে নৌযান চলাচল বন্ধ, ১২০০ পর্যটক আটকা

85

গণধ্বনি ডেস্ক : বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুলের’ কারণে সমুদ্র বন্দর ও উপকূলীয় এলাকায় তিন নম্বর সতর্ক সংকেত দেখানো হয়েছে। এতে সেন্টমার্টিন নৌরুটে পর্যটকবাহী জাহাজ সহ নৌযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। ফলে দ্বীপে আটকা পড়েছেন প্রায় এক হাজার ২০০ পর্যটক।

এদিকে, টেকনাফ থেকে কোনো পর্যটকবাহী জাহাজ, জলযান, মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাবধানে থাকতে বলা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন টেকনাফ উপজেলার নবাগত নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘বৈরী আবহাওয়ার ফলে সর্তকতার জন্য সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে জাহাজসহ জলযান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। দ্বীপে হাজারের অধিক পর্যটক আটকা পড়েছেন, তাদের খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে, পরিস্থিতি ভালো হলে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) সকাল থেকে সেন্টমার্টিন নৌরুট থেকে পর্যটকবাহী কোনো জাহাজ ছেড়ে যায়নি। এছাড়া কোন নৌযান চলাচল করতে দেখা যায়নি। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে বলে জানায় সংশ্লিষ্টরা।

ফলে দ্বীপ ভ্রমণে যাওয়া পর্যটকদের মাঝে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। তবে আবহাওয়া পরিস্থিতি ভালো হলে আটকা পড়া পর্যটকদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে।

এদিকে বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) রাতে টেকনাফে হালকা বৃষ্টিপাত হয়েছে। এখনো আকাশ মেঘাচ্ছন্ন অবস্থায় রয়েছে।

সেন্টমার্টিন ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহমেদ বলেন, ‘বৈরী আবহাওয়ায় সেন্টমার্টিন নৌরুটে জাহাজসহ জলযান চলাচল বন্ধ থাকায় দ্বীপ ভ্রমণে আসা প্রায় ১২০০ এর মত পর্যটক আটকা পড়েছেন। আটকাপড়া পর্যটকদের সুবিধা অসুবিধার বিষয়ে সার্বক্ষণিক খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। পরবর্তীতে ইউএনও সঙ্গে যোগাযোগ করে ব্যবস্থা নেওয়ার হবে।’

SHARE