রাবি চলছে দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষক সমাজের ধারাবাহিক আন্দোলন

135

স্টাফ রিপোর্টার : রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয় (রাবি) প্রশাসনকে দুর্নীতিবাজ উল্লেখ করে অপসারণের দাবিতে ধারাবাহিক আন্দোলনে নেমেছে ‘রাবি দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষক সমাজ’। গতকাল সোমবার বেলা ১১টায় শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ সিনেট ভবনের সামনে মানববন্ধ কর্মসূচি পালন করে শিক্ষকরা। এর আগে আন্দোলন থেকে কর্মসূচি থেকে বর্তমান প্রশাসনের দুর্নীতিগ্রস্ত কর্মকর্তাদের অপসারণ না করা পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে সোমবার ও বৃহস্পতিবার কর্মসূচি পালন করার ঘোষণা দেয় আন্দোলনরত শিক্ষকরা। মানববন্ধনে পরিবেশ বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক মো. সুলতান-উল-ইসলাম বলেন, দেশের বৃহৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা-দুর্নীতি এক সঙ্গে চলতে পারে না। আমরা চাই, পঠন-পাঠনে প্রতিযোগিতা হোক, নিয়োগ বাণিজ্য বন্ধ হোক, এ বিশ^বিদ্যালয়ের ঐতিহ্য ফিরে পাক। জাতির সামনে শিক্ষকের মর্যাদা নিয়ে বাচঁতে চাই। ক্যাম্পাসে দুর্নীতির বিরুদ্ধে যে জোয়ার উঠেছে সেটা জড়িতদের শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, আইন অনুষদের সাবেক ডিন অধ্যাপক বিশ^জিৎ চন্দ, সাবেক প্রক্টর অধ্যাপক মুজিবুল হক আযাদ খান, রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক তরিকুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সাবেক প্রশাসক ড. সফিকুন্নবী সামাদী, উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এস এম হায়দার, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক জিন্নাত আরা বেগম, গণিত বিভাগের অধ্যাপক আশাবুল হক, সাবেক ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক মিজানুর রহমান, প্রাণ রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক এস এম এক্রাম উল্যাহ প্রমুখ। প্রসঙ্গত, রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান এক সেমিনারে বক্তব্য শেষে জয় হিন্দ বলা এবং উপ-উপাচার্য চৌধুরী মোহাম্মদ জাকারিয়ার সাথে চাকরি প্রত্যাশীর ফোনালাপ ফেসবুক ও গণমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এরপর গত ৩ অক্টোবর থেকে বর্তমান প্রশাসনের উপাচার্য এবং উপ-উপাচার্য অপসারণ চেয়ে আন্দোলন করে আসছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

SHARE